রুশ-নিয়ন্ত্রিত অঞ্চলে ইউক্রেনের হামলা, নিহত ২৬

অনলাইন ডেস্ক : ইউক্রেনের রুশ-নিয়ন্ত্রিত অঞ্চলে হামলা চালিয়েছে ইউক্রেনীয় বাহিনী। এতে ২৬ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও বহু মানুষ। ইউক্রেনের রুশ-নিয়ন্ত্রিত লুগানস্ক এবং খেরসন অঞ্চলে এই হামলা ও হতাহতের ঘটনা ঘটে।

শনিবার (৮ জুন) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এএফপি।
প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রুশ-নিয়ন্ত্রিত লুগানস্ক এবং খেরসন অঞ্চলের কিছু অংশে ইউক্রেনের হামলায় শুক্রবার ২৬ জন নিহত এবং আরও বহু মানুষ আহত হয়েছেন বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়ার সেনাবাহিনী। এরপর একই বছরের সেপ্টেম্বর মাসে ইউক্রেনের দোনেৎস্ক, লুহানস্ক, জাপোরিঝিয়া ও খেরসন অঞ্চলকে রাশিয়ার মূল ভূখণ্ডের সঙ্গে যুক্ত করে মস্কো।

মূলত এসব অঞ্চলের কোনওটিকে পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ না করা সত্ত্বেও এগুলোকে রুশ ভূখণ্ডের সঙ্গে যুক্ত করার দাবি করে রাশিয়া।

আরও পড়ুনঃ   এমপি আনারকে হত্যায় ৫ কোটিতে ঘাতক ভাড়া করা হয়: পশ্চিমবঙ্গ সিআইডি

খেরসনের রাশিয়ান নিযুক্ত কর্তৃপক্ষের প্রধান ভ্লাদিমির সালদো টেলিগ্রামে লিখেছেন, দক্ষিণ খেরসন অঞ্চলের সাদোভ গ্রামের একটি দোকান ধ্বংস হয়ে গেছে। সেখানে ‘বিপুল সংখ্যক দর্শনার্থী এবং কর্মচারীরা অবস্থান করছিলেন।’

সালদো রাশিয়ান মিডিয়াকে জানান, পরে পার্শ্ববর্তী বাড়ির বাসিন্দারা ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্য করতে ছুটে আসার পরপরই সেখানে একটি হিমারস ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানে। এতে মোট ২২ জন নিহত এবং আরও ১৫ জন আহত হয়েছেন।

সালদো ইউক্রেনে পশ্চিমা অস্ত্র সরবরাহের মাধ্যমে ‘বেসামরিক নাগরিকদের জঘন্য হত্যাকাণ্ডের’ নিন্দা করেছেন।

এর আগে শুক্রবার লুগানস্কে রুশ-নিযুক্ত কর্মকর্তারা জানান, পূর্ব অঞ্চলের একই নামের প্রধান শহরের একটি অ্যাপার্টমেন্ট ব্লকে ইউক্রেনের ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় চারজন নিহত এবং আরও ৪০ জনেরও বেশি মানুষ আহত হয়েছেন।

আরও পড়ুনঃ   আফগানিস্তানে আকস্মিক বন্যায় একদিনে দুই শতাধিক মানুষের মৃত্যু

ইউক্রেনের পরিস্থিতি নাজুক, একের পর এক অঞ্চল দখল করছে রুশ বাহিনী
রাশিয়াকে হুমকি দেওয়া যাবে না, বৈশ্বিক সংঘর্ষের হুঁশিয়ারি পুতিনের
এই অঞ্চলের রাশিয়া-নিযুক্ত প্রধান লিওনিড পাসেচনিকের মতে, লুগানস্ক শহরটি শুক্রবার সকালে ‘বিশাল’ ক্ষেপণাস্ত্র হামলার শিকার হয়।

মস্কো-সমর্থিত অঞ্চলের সরকার টেলিগ্রামে বলেছে, হামলার পর সেখানকার একটি অ্যাপার্টমেন্ট ব্লকের একটি অংশ ধসে পড়ে এবং ‘নিহত চারজন বেসামরিক ব্যক্তির মৃতদেহ ধ্বংসস্তূপ থেকে সরানো হয়েছে’।

আঞ্চলিক স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাটালিয়া পাশচেঙ্কো বলেছেন, ৪৬ জনকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। আহতদের মধ্যে আট বছর বয়সী এক বালক এবং তিনজন কিশোরও রয়েছে। আহতদের মধ্যে ১০ জনের অবস্থা ‘গুরুতর’।