ঐশ্বরিয়ার কানের জামা পরেই মেট গালায় মিন্ডি কালিং

অনলাইন ডেস্ক : মিন্ডি কালিংয়ের মেট গালা ২০২৪-এর লুক ঝড় তুলেছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। ২০২২ সালে ঐশ্বরিয়া রাই কান উৎসবে যে পোশাক পরে গিয়েছিলেন, তার সঙ্গে দারুণ মিল পাওয়া গেছে মেট গালায় পরা মিন্ডি কালিংয়ের জামা!

গত ৬ মে মেট্রোপলিটন মিউজিয়াম অফ আর্টের ভিতরে পা রাখেন কালিং। ফটোগ্রাফাররা তার লুকের প্রশংসা করলেও, সোশ্যাল মিডিয়া দেরি করেনি ‘চুরি’ ধরতে। ঠিকই তারা খুঁজে খুঁজে বের করেছেন, লুকিয়ে থাকা মিলগুলো।

মিন্ডি কালিং ভারতের গৌরব গুপ্তের ডিজাইন করা শ্যাম্পেন রঙের গাউনে মেট গালা ২০২৪-এ রেড কার্পেটে ঝড় তোলেন। ‘গার্ডেন অব টাইম’ থিম অনুসারে, গাউনটির পিছনে বানানো হয়েছিল ফুলের মতো কাঠামো। পোশাকের পিছনটা দেখলে কারও কারও মনে হবে, যেন কোনও ফুলের পাঁপড়ি। থরে থরে বিছিয়ে রাখা হয়েছে। মেট গালাতে সকলেই বাহবা জানান, কালিংয়ের ফ্যাশন স্টেটমেন্টকে।

আরও পড়ুনঃ   ঈদে ছেলেকে দেখতে যায়নি রাজ, পরী বললেন ‘বাউন্ডুলে’

কিছু ভারতীয় ফ্যাশন উৎসাহী ঐশ্বরিয়ার কান পোশাকের সঙ্গে এর অদ্ভুত মিল খুঁজে পান। আশ্চর্যজনকভাবে সে পোশাকটিও ডিজাইন করেছিলেন গৌরব গুপ্তই। গোলাপি এবং ব্লাশ রঙের আশ্চর্য মেলবন্ধন ছিল সেটি। যা তৈরি করতে সময় লেগেছিল ৩ হাজার ৫০০ ঘণ্টা। সে গাউনের কাট থেকে শুরু করে ভেইল, সবই যেন হুবহু এক।

এক নেটিজেন মিন্ডি কালিংয়ের পোশাক নিয়ে মন্তব্য করেন, ‘আমি ভেবেই চলেছি কোথায় যেন দেখেছি… কোথায় যেন দেখেছি। এ যে কান থেকে আমাদের ঐশ্বরিয়া’। দ্বিতীয়জন লিখলেন, ‘কালিংকে দেখতে সুন্দর লাগছে ঠিকই, তবে কানে ঐশ্বরিয়া যে পোশাক পরেছিলেন, তার থেকে লুকটা একটু অন্যরকম হতে পারত।’

আরও পড়ুনঃ   ডিভোর্স ছিল ‘ভয়াবহ জিনিস’, বললেন বিল গেটসের সাবেক স্ত্রী

রাহুল মিশ্রর ডিজাইন করা গোল্ডেন শাড়ি গাউন বেছে নেন ইশা আম্বানি। হ্যান্ড-এমব্রয়ডারি করে ফুটিয়ে তোলা হয় ফুল, প্রজাপতি আর ড্রাগন ফ্লাই। অন্যদিকে, ভারতীয় ফ্যাশন ডিজাইনার সব্যসাচী মুখোপাধ্যায়ের হাতে তৈরি এমব্রয়ডারি করা শাড়ি বেছে নিয়েছেন আলিয়া ভাট। এই শাড়ির বৈশিষ্ট্য হল এটির লম্বা আঁচল। ২৩ ফুট লম্বা সেটি পুরোপুরি হাতে বোনা। দুজনের লুকই বেশ মনে ধরেছে নেটিজেনদের।