মানিকগঞ্জে বন্ধুকে আটকে রেখে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

অনলাইন ডেস্ক : মানিকগঞ্জ সদর উপজেলায় ১৫ বছর বয়সের এক স্কুলছাত্রীকে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে দুই যুবককে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার (৪ মে) রাতে মানিকগঞ্জ পৌর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। রোববার ভুক্তভোগী ওই স্কুলছাত্রীর নানি বাদি হয়ে তিন যুবকের নামে সদর থানায় মামলা করেন।

রোববার (৫ মে) সন্ধ্যায় মানিকগঞ্জ সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাবিল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আসামিরা হলেন সদর উপজেলার বোয়ালিয়া গ্রামের সাব্বির হোসেন (২২), একই উপজেলা সরুন্ডি গ্রামের জাহিদ মিয়া (২০) ও নয়াকান্দি গ্রামের মহিউদ্দিন ইসলাম (২০)। পুলিশ সাব্বির ও মহিউদ্দিনকে গ্রেপ্তার করেছে।

আরও পড়ুনঃ   নিউ রাজশাহী স্কয়ার ডায়াগনস্টিক সেন্টারে চিকিৎসক ছাড়ায় ভুয়া সনদ, নিয়ন্ত্রণে রামেক ব্রাদার মিজান

মামলা সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলায় একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণিতে পড়ে ভুক্তভোগী ছাত্রী। গত শনিবার বিকেলে এক বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে মানিকগঞ্জ পৌর এলাকায় বেউথা সেতু এলাকায় ঘুরতে যায় সে। সেখান থেকে ফেরার পথে রাত সাড়ে ৯টার দিকে বড় সরুন্ডি এলাকায় তাদের পথ আটকান তিন যুবক। এরপর ভয়ভীতি দেখিয়ে স্কুলছাত্রী ও তার বন্ধুকে পাশের একটি শসা ক্ষেতে নিয়ে যান তারা। পরে জাহিদ ও মহিউদ্দিন ওই স্কুলছাত্রীর বন্ধুকে আটকে রাখেন আর সাব্বির তাকে ধর্ষণ করেন। এ সময় স্থানীয় লোকজন সেখানে উপস্থিল হলে বন্ধুকে রেখে জাহিদ ও মহিউদ্দিন পালিয়ে যান। পরে সাব্বিরকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে স্থানীয় লোকজন।

আরও পড়ুনঃ   দেশব্যাপী ৩ দিনের হিট অ্যালার্ট জারি

এ বিষয়ে সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাবিল হোসেন বলেন, ভুক্তভোগী ছাত্রীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে। গতকাল শনিবার দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। অপর আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।