বগুড়ায় স্বামীকে আটকে স্ত্রীকে দলবেঁধে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৫

অনলাইন ডেস্ক : বগুড়ার গাবতলীতে অস্ত্রের মুখে স্বামীকে জিম্মি করে স্ত্রীকে দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) বিকেলে তাদের আদালতে পাঠানো হয়।

এর আগে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সোয়া সাতটার দিকে উপজেলার চেলোপাড়া-চন্দনবাইশা সড়কের পোড়াদহ লোহার ব্রিজ এলাকায় ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় মামলার পর শুক্রবার ভোররাতে অভিযান চালিয়ে নিজ নিজ বাড়ি থেকে আসামিদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

পুলিশ দেখে পালাতে গিয়ে প্রাইভেটকারের মুখোমুখি অটো, নিহত ১
গ্রেপ্তার পাঁচজন হলেন, গাবতলী উপজেলার মহিষাবান মধ্যপাড়ার বাসিন্দা রাব্বি (২৪), আব্দুল অহেদ (২১), হৃদয় (২১) কাউছার (২১) ও মহিষাবান চকমড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা নুর আলম নিশাদ (২২)।

আরও পড়ুনঃ   উপজেলা নির্বাচনে এমপি’রা হস্তক্ষেপ করতে পারবে না : ওবায়দুল কাদের

গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বগুড়ার গাবতলী মডেল থানার ওসি মো. আবুল কালাম আজাদ।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ধর্ষণের শিকার ২১ বছরের ওই নারী গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে স্বামীর সঙ্গে ইজিবাইকে করে বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলার প্রেম যমুনার ঘাটে ঘুরতে যান। একই দিন সন্ধ্যায় বাড়ি ফেরার পথে জেলার গাবতলী উপজেলার পোড়াদহ এলাকায় পাঁচজন যুবক তাদের ইজিবাইকের গতিরোধ করেন। তাদের হাতে ধারালো ছুরি ছিল। ওই সময় তারা ওই নারী ও তার স্বামীকে হত্যার হুমকি দেন। এরপরই স্বামীর সামনে থেকে তার স্ত্রীকে ইজিবাইক থেকে নামিয়ে পাশের ইছামিত নদী সংলগ্ন সিঙ্গারবিল নামক স্থানের আবাদি জমিতে নিয়ে যান অভিযুক্ত তিনজন। আর বাকি দুজন তার স্বামীকে ইজিবাইকের ভেতরে চাকুর ভয় দেখিয়ে আটকে রাখে। এরপর পর্যায়ক্রমে তারা ওই নারীকে ধর্ষণ করে। পরে অভিযুক্তরা তাদের ফেলে পালিয়ে যায়।

আরও পড়ুনঃ   চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও নওগাঁয় বজ্রপাতে প্রাণ গেলো ৬ জনের

ওসি আবুল কালাম আজাদ বলেন, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে ওই নারী নিজেই বাদী হয়ে থানায় ধর্ষণ মামলা করেন। মামলার পর অভিযান চালিয়ে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করা হয়। আজ বিকেলে তাদের আদালতের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।