পদ্মায় নিখোঁজ দুই শিশু! একজনের লাশ উদ্ধার

মোহাঃ আসলাম আলী স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহীর বাঘা উপজেলার পদ্মা নদীতে গোসল করাতে গিয়ে নিখোঁজ দুই শিশুর মধ্যে একজনের লাশ পাওয়া গেছে।

রবিবার দুপুরের দিকে চকরাজাপুর ইউনিয়নের চৌমাদিয়া মানিকের চর মসজিদ সংলগ্ন নদীর ঘাটে গোসল করতে গিয়ে তারা নিখোঁজ হয়।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) বেলা ১২ টার দিকে চকরাজাপুর এলাকায় পদ্মা নদীতে ভেসে ওঠে শিশু জান্নাতীর লাশ।
স্থানীয় লোকজন জানান,দুই শিশু হলো কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার বাংলাবাজার চর এলাকার বাসিন্দা আবুল কাশেম মণ্ডলের মেয়ে জান্নাতী খাতুন (৮) এবং চুয়াডাঙ্গার জয়দেবপুরের পাটঘাট গ্রামের মনির উদ্দিনের মেয়ে ঝিলিক খাতুন (১১)। নিখোঁজ দুই শিশু সম্পর্কে খালা-ভাগ্নি।এদের উদ্ধারে রবিবার রাজশাহী সদর ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের একটি ডুবুরি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কাজ চালালেও তাদের সন্ধান মেলেনি। তবে সোমবার আকষ্মিক ভাবে চকরাজাপুর ঘাটে জান্নাতীর লাশ ভেসে ওঠে। এখন সন্ধান চলছে অপর শিশু ঝিলিকের।

আরও পড়ুনঃ   মাঝারি দাবদাহে পুড়ছে রাজশাহী অঞ্চল

রাজশাহী সদর ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আবু সামা বলেন,রবিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত তারা উদ্ধার অভিযান চালিয়েছেন। সোমবার সকাল থেকে আবার উদ্ধার অভিযান শুরু হয়েছে। সকালে একজনকে পাওয়া গেলেও দুপুর পর্যন্ত আরেক শিশুকে পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুনঃ   রাজশাহীতে ঈদের প্রধান জামাত সকাল সাড়ে ৭টায়

এ বিষয়ে চকরাজাপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আজিজুল আজম জানান, নিখোঁজ দুই শিশুর পরিবার বাঘার চৌমাদিয়া চরে নানার বাড়িতে বেড়াতে এসে ছিলো।