তানোরে আদিবাসী পল্লীতে ২০ হাজার টাকায় শিশু বিক্রি

তানোর প্রতিনিধি : রাজশাহী তানোর উপজেলা সরঞ্জয় ইউনিয়নের আদিবাসী পল্লী গ্রামে বাপ্পি টুডু নামে এক বছরের শিশু বাচ্চাকে বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় সোমবার ওই শিশুর বাবা শ্রী মানিয়েল টুডু বাদী হয়ে তিন জনকে অভিযুক্ত করে তারার থানায় একটি অভিযোগ করেছেন।

অভিযুক্তরা হলেন, মানিলের মা ফেলমিনা হেমরম (৪০), তার বোন জোসনা টুডু (২৮) ও বোন জামাই জয়নাল হেমরম (৩০)।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, তানোর উপজেলা সরঞ্জয় ইউনিয়নের নবনবী গ্রামের আদিবাসী পল্লীর শ্রী মনিয়েল টুডু চাকরি সুবাদে ঢাকায় থাকেন। গ্রামের বাড়িতে তার মা ফেলমিনা হেমরম, তার স্ত্রী ময়না হেমরমসহ তার দুই সন্তান থাকেন। অভাব অনটনের সংসারে তার মা ফেলমিনার সঙ্গে তার স্ত্রী ময়না পারিবারিক দ্বন্দ্বের কারনে ময়না রাগ করে গত ২০ দিন আগে তার বাপের বাড়িতে দুই সন্তান রেখে চলে যায়।

আরও পড়ুনঃ   নগরীতে নির্ধারিত স্থানে কোরবানি ও বর্জ্য অপসরণের নিদের্শ

মানিয়েল টুডু বলেন, আমার মায়ের অত্যাচারে আমার স্ত্রী রাগ করে দুই সন্তানকে রেখে বাপের বাড়িতে চলে যায়। আমি ঢাকায় কুরিয়ার সার্ভিসে চাকুরী করি।

মাঝে মধ্যে আমার মাকে ফোন দিয়ে আমার দুই সন্তানর খোজখবর নিতাম। মা সবসময় বলতো দুই সন্তান ভালো আছে। আমার বাড়িতে না থাকায় আমার মা বোন ও বোন জামাই মিলে টাকার বিনিময়ে আমার এক বছরের ছোট সন্তান বাপ্পি টুডুকে ২০ হাজার টাকার বিনিময়ে বিক্রি করে দেন। আমি ঈদের ছুটিতে বাড়ি এসে সব কিছু জানতে পারি। তানোর থানা ওসি আব্দুর রহিম বলেন, অভিযোগ পেয়েছি বাচ্চা উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।