চাচাতো ভাইদের কোদালের আঘাতে স্কুলশিক্ষকের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক : নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলায় জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে সংঘর্ষের সময় চাচাতো ভাইদের কোদালের আঘাতে মো. জিল্লুর রহমান (৪৮) নামে এক স্কুলশিক্ষকের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার (৩০ মার্চ) সকালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় মো. হামিদ আলী (৫৫) নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) দুপুরের দিকে উপজেলার চাঁদপুর গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হন। আহতদের মধ্যে জিল্লুর রহমান মাথায় প্রতিপক্ষ চাচাতো ভাইদের কোদালের আঘাতে আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে মারাত্মক জখম হন। এ অবস্থায় তাকে প্রথমে নাটোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে রামেক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। আর অন্যদের নাটোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ   কেএনএফ প্রধানের স্ত্রীসহ দুইজনকে লালমনিরহাটে বদলি

নিহত জিল্লুর রহমান উপজেলার চাঁদপুর গ্রামের মৃত মোজাহার আলীর ছেলে। তিনি নওগাঁর আত্রাই উপজেলার থল ওলমা নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক (মৌলভি) হিসেবে কর্মরত ছিলেন। গ্রেপ্তার মো. আহাদ আলী একই গ্রামের মৃত মকবুল হোসেনের ছেলে।

আরও পড়ুনঃ   ছেলের সঙ্গে এসএসসি পাস করলেন ইউপি সদস্য দুই বোন

নলডাঙ্গা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মনোয়ারুজ্জামান জানান, গত বৃহস্পতিবার জমিজমা নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষ ১০ জন আহত হয়েছেন‌। এদের মধ্যে মাথায় মারাত্মক আঘাতপ্রাপ্ত হন মো. জিল্লুর রহমান। চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সকালে তিনি রামেক হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।