রাজশাহীতে সাড়ে ৮ কেজি হেরোইন উদ্ধার

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:৪৯:১৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৪ ২ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলায় চিহ্নিত এক মাদক কারবারির খামারবাড়ি থেকে সাড়ে আট কেজি হেরোইন উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে অভিযানের সময় পুলিশ ফরিদুল ইসলাম (২৭) নামের এই মাদক কারবারির নাগাল পায়নি। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ফরিদুল দেয়াল টপকে পালিয়েছেন।

ফরিদপুলের খামারবাড়ি গোদাগাড়ী পৌরসভার মাদারপুর ডিমভাঙা এলাকায়। গোদাগাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল মতিনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ শনিবার (২৭ জানুয়ারি) রাত ১১টা থেকে তিনটা পর্যন্ত এ খামারবাড়িতে অভিযান চালায়। অভিযানে ৮ কেজি ৪০০ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করা হয়। এর আনুমানিক মূল্য ৮ কোটি ৪০ লাখ টাকা।

এই ঘটনায় খামারবাড়ির মালিক ওই মহল্লার আজিজুল হকের ছেলে ফরিদুল ইসলাম ও বাড়ির কেয়ারটেকার মহিশালবাড়ি মহল্লার আতাউর রহমানের ছেলে সোহেল রানাকে পলাতক আসামি করে থানায় মামলা করেছে পুলিশ। রোববার (২৮ জানুয়ারি) নিজের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানিয়েছেন রাজশাহীর পুলিশ সুপার (এসপি) সাইফুর রহমান।

তিনি বলেন, খামারবাড়ির মালিক ফরিদুল ইসলাম চোরাপথে ভারত থেকে এই হেরোইন নিয়ে আসেন। দেশের বিভিন্ন স্থানে পাচারের জন্য বাজারের ব্যাগে ঢুকিয়ে খামারবাড়িতে বালুর স্তুপের মধ্যে মজুদ রেখেছিলেন। গোপন তথ্যের ভিত্তিতে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় ফরিদুল ও কেয়ারটেকার সোহেল রানা কৌশলে দেয়াল টপকিয়ে পালিয়ে যান।

পুলিশ সুপার বলেন, ফরিদুল ও সোহেল চিহ্নিত মাদক কারবারি। তাদের বিরুদ্ধে এর আগেও মাদকের মামলা হয়েছে। জামিনে বের হয়ে আবারও মাদক কারবারে জড়িয়ে যাচ্ছেন। তারা দেশের বিভিন্ন স্থানে মাদক সরবরাহ করতেন। এই দুই মাদক কারবারিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

রাজশাহীতে সাড়ে ৮ কেজি হেরোইন উদ্ধার

আপডেট সময় : ০৩:৪৯:১৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৪

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলায় চিহ্নিত এক মাদক কারবারির খামারবাড়ি থেকে সাড়ে আট কেজি হেরোইন উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে অভিযানের সময় পুলিশ ফরিদুল ইসলাম (২৭) নামের এই মাদক কারবারির নাগাল পায়নি। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ফরিদুল দেয়াল টপকে পালিয়েছেন।

ফরিদপুলের খামারবাড়ি গোদাগাড়ী পৌরসভার মাদারপুর ডিমভাঙা এলাকায়। গোদাগাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল মতিনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ শনিবার (২৭ জানুয়ারি) রাত ১১টা থেকে তিনটা পর্যন্ত এ খামারবাড়িতে অভিযান চালায়। অভিযানে ৮ কেজি ৪০০ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করা হয়। এর আনুমানিক মূল্য ৮ কোটি ৪০ লাখ টাকা।

এই ঘটনায় খামারবাড়ির মালিক ওই মহল্লার আজিজুল হকের ছেলে ফরিদুল ইসলাম ও বাড়ির কেয়ারটেকার মহিশালবাড়ি মহল্লার আতাউর রহমানের ছেলে সোহেল রানাকে পলাতক আসামি করে থানায় মামলা করেছে পুলিশ। রোববার (২৮ জানুয়ারি) নিজের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানিয়েছেন রাজশাহীর পুলিশ সুপার (এসপি) সাইফুর রহমান।

তিনি বলেন, খামারবাড়ির মালিক ফরিদুল ইসলাম চোরাপথে ভারত থেকে এই হেরোইন নিয়ে আসেন। দেশের বিভিন্ন স্থানে পাচারের জন্য বাজারের ব্যাগে ঢুকিয়ে খামারবাড়িতে বালুর স্তুপের মধ্যে মজুদ রেখেছিলেন। গোপন তথ্যের ভিত্তিতে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় ফরিদুল ও কেয়ারটেকার সোহেল রানা কৌশলে দেয়াল টপকিয়ে পালিয়ে যান।

পুলিশ সুপার বলেন, ফরিদুল ও সোহেল চিহ্নিত মাদক কারবারি। তাদের বিরুদ্ধে এর আগেও মাদকের মামলা হয়েছে। জামিনে বের হয়ে আবারও মাদক কারবারে জড়িয়ে যাচ্ছেন। তারা দেশের বিভিন্ন স্থানে মাদক সরবরাহ করতেন। এই দুই মাদক কারবারিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।