সর্বশেষ ::
নারীর ক্ষমতায়নে পুনাককে কার্যকর ভূমিকা রাখার আহ্বান ড. রেবেকা সুলতানার নাম থেকে স্বামীর চিহ্ন মুছে ফেললেন মাহি রাজশাহী ফটো জার্নালিস্ট এ্যাসোসিয়েশনের ২৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন আরএমপি’র কমিশনারসহ ৪০০ জনকে পদক পরালেন প্রধানমন্ত্রী বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিল রাজপাড়া থানা পুলিশ রাজশাহী এডিটরস ফোরামের কমিটি গঠন আরটিজেএ নির্বাচন : সভাপতি মেহেদী, সাধারণ সম্পাদক রাব্বানী নির্বাচিত ২১ বছর সমুদ্রসীমার অধিকার নিয়ে কেউ কথা বলেনি রাজশাহীতে যাত্রা শুরু করছে শহীদ কামারুজ্জামান নার্সিং কলেজ শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান কেন্দ্রীয় উদ্যানে চালু হলো দৃষ্টিনন্দন ড্যান্সিং ফোয়ারা

ব্রিটিশ তেল ট্যাংকারে হামলার পর হুথিদের অবস্থানে যুক্তরাষ্ট্রের হামলা

  • আপডেট সময় : ১২:৫৫:৫৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৪ ৩ বার পড়া হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক: মার্কিন বাহিনী হুথি নিয়ন্ত্রিত ইয়েমেনে একটি জাহাজ বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র স্থাপনায় হামলা চালিয়েছে।
এই ক্ষেপণাস্ত্র শনিবার ভোরে হামলার জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছিল। ইরান-সমর্থিত বিদ্রোহীরা এডেন উপসাগরে একটি ব্রিটিশ ট্যাঙ্কারে হামলার কয়েক ঘন্টা পর তারা একটি অনুরূপ হামলার প্রস্তুতি নিয়েছিল।
বাণিজ্য রুটে জাহাজগুলোতে হামলার ক্ষমতা হ্রাস করার লক্ষ্যে মার্কিন এবং ব্রিটিশ বাহিনী যৌথ হামলা শুরু করেছে। বিদ্রোহীরা বলেছে, গাজা উপত্যকায় ফিলিস্তিনিদের সমর্থনে তারা এই হামলা চালায়। ওয়াশিংটনও একতরফা বিমান হামলা চালিয়েছে এবং হুথিরা তাদের আক্রমণ চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার করেছে।
মার্কিন সামরিক বাহিনীর সেন্ট্রাল কমান্ড (সেন্টকম) বলেছে, তারা শনিবার ভোরে হুথিদের উপর আরেকটি হামলা চালিয়েছে। সেখানে ‘লোহিত সাগরে লক্ষ্য করে জাহাজ-বিরোধী ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের জন্য প্রস্তুত ছিল’।
সেন্টকম সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এক্স-এ এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘পরে বাহিনী আত্মরক্ষার্থে ক্ষেপণাস্ত্রটিতে নিক্ষেপ করে এবং ধ্বংস করে দেয়।’
হুথিদের সামরিক মুখপাত্র ইয়াহিয়া সারি বলেছেন, আগের দিন সন্ধ্যায় ইয়েমেনি নৌবাহিনীর ছোঁড়া ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে ব্রিটিশ তেল ট্যাঙ্কার মার্লিন লুয়ান্ডা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ব্রিটিশ তেল ট্যাংকারে হামলার পর হুথিদের অবস্থানে যুক্তরাষ্ট্রের হামলা

আপডেট সময় : ১২:৫৫:৫৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৪

অনলাইন ডেস্ক: মার্কিন বাহিনী হুথি নিয়ন্ত্রিত ইয়েমেনে একটি জাহাজ বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র স্থাপনায় হামলা চালিয়েছে।
এই ক্ষেপণাস্ত্র শনিবার ভোরে হামলার জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছিল। ইরান-সমর্থিত বিদ্রোহীরা এডেন উপসাগরে একটি ব্রিটিশ ট্যাঙ্কারে হামলার কয়েক ঘন্টা পর তারা একটি অনুরূপ হামলার প্রস্তুতি নিয়েছিল।
বাণিজ্য রুটে জাহাজগুলোতে হামলার ক্ষমতা হ্রাস করার লক্ষ্যে মার্কিন এবং ব্রিটিশ বাহিনী যৌথ হামলা শুরু করেছে। বিদ্রোহীরা বলেছে, গাজা উপত্যকায় ফিলিস্তিনিদের সমর্থনে তারা এই হামলা চালায়। ওয়াশিংটনও একতরফা বিমান হামলা চালিয়েছে এবং হুথিরা তাদের আক্রমণ চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার করেছে।
মার্কিন সামরিক বাহিনীর সেন্ট্রাল কমান্ড (সেন্টকম) বলেছে, তারা শনিবার ভোরে হুথিদের উপর আরেকটি হামলা চালিয়েছে। সেখানে ‘লোহিত সাগরে লক্ষ্য করে জাহাজ-বিরোধী ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের জন্য প্রস্তুত ছিল’।
সেন্টকম সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এক্স-এ এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘পরে বাহিনী আত্মরক্ষার্থে ক্ষেপণাস্ত্রটিতে নিক্ষেপ করে এবং ধ্বংস করে দেয়।’
হুথিদের সামরিক মুখপাত্র ইয়াহিয়া সারি বলেছেন, আগের দিন সন্ধ্যায় ইয়েমেনি নৌবাহিনীর ছোঁড়া ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে ব্রিটিশ তেল ট্যাঙ্কার মার্লিন লুয়ান্ডা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।