স্মার্ট কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে দৃষ্টান্ত হবে রাজশাহী

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:০২:২১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২৪ ১ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, ফ্রিল্যান্সিং খাত ভবিষ্যতে বাংলাদেশের বিদেশী মুদ্রা আয়ের বড় খাত হবে। রাজশাহীতে কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন এমপ্লয়মেন্ট স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। আগামীতে নগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে। এখানে তরুণ-তরুণীরা প্রশিক্ষণ নিয়ে ফ্রিল্যান্সিং করে অর্থ আয় করতে পারবে। অন্যান্য ক্ষেত্রের মতও ফ্রিল্যান্সিং খাত হতে ডলার আয় ও স্মার্ট কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে দৃষ্টান্ত হবে রাজশাহী।

রোববার (২১ জানুয়ারি) বিকেলে নগর ভবনের সিটি হলরুমে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর ও কর্মকর্তাদের সাথে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, এমপি। অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলককে শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান করেন রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।

সভায় মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, বিদেশী আয়ের খাত সমৃদ্ধ করতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী একটা দিক নির্দেশনা দিয়েছেন। ফ্রিলান্সিং খাত থেকে আগামী ৫ বছরে আয় ৫ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত করার জন্য প্রধানমন্ত্রী যে নির্দেশনা দিয়েছেন, সেটি হবে ইনশাল্লাহ। এই ধারা অব্যাহত থাকলে আগামীতে আয়ের অন্যতম একটা বৃহৎ খাতে পরিণত হবে।

রাসিক মেয়র লিটন আরো বলেন, আরসিসি এমপ্লয়মেন্ট স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউটে তরুণ-তরুণীদের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে। তারা দক্ষ হয়ে ফ্রিল্যান্সিং এর মাধ্যমে আয় করতে পারবে। আমরা আয়ের খাতও তাদের দেখিয়ে দেবো। আমাদের ইনস্টিটিউটের কার্যক্রম পরিপূর্ণ করতে তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী ৬০টি কম্পিউটার সেট প্রদানের ঘোষণা দেওয়ায় তাকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যে স্বপ্ন, আগামীতে বাংলাদেশ অন্যতম একটি ধ্বনী দেশে পরিণত হবে। আগামী ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ বির্নিমানের স্বপ্ন ইনশাল্লাহ বাস্তবায়ন হবে।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, আরসিসি এমপ্লয়মেন্ট স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা অনেক ভালো ও অসাধারণ একটি উদ্যোগ। এই মডেলটি সারা বাংলাদেশে ছড়িয়ে দেওয়া হবে। স্মার্ট কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে এটি উল্লেখযোগ্য ভুমিকা পালন করবে।

তিনি আরো বলেন, ফ্রিল্যান্সিং খাতে বাংলাদেশ বর্তমানে ১ দশমিক ৯ বিলিয়ন ডলার আয় করছে। প্রধানমন্ত্রী আগামী ৫ বছরে এ খাতে আয় ৫ বিলিয়ন ডলারে উন্নীতকরণের জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন। সেই লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি। ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের পর আমরা স্মার্ট বাংলাদেশের পথে এগিয়ে যাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন ভাই রাজশাহীকে সারাদেশের মধ্যে সেরা ও মডেল শহরে পরিণত করেছেন। সারা বাংলাদেশকে তাঁকে অনুসরণ করছে। তিনি প্রধানমন্ত্রীর নিকট হাইটেক পার্ক দাবি করেছিলেন। প্রধানমন্ত্রী রাজশাহীতে হাইটেক পার্ক করে দিয়েছেন। লিটন ভাই স্মার্ট রাজশাহী সিটি গড়তে উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। আগামীতে এই শিক্ষানগরী রাজশাহীকে সিলিকন সিটি ও স্মার্ট কর্মসংস্থানের নগরীতে হবে।

প্রতিমন্ত্রী পলক আরো বলেন, লিটন ভাইয়ের নির্বাচনী স্লোগান ছিল ‘উন্নয়ন দৃশ্যমান, এবার হবে কর্মসংস্থান। আওয়ামী লীগের ইশতেহার কমিটির সদস্য হিসেবে আমি এই স্লোগানটি আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার নিকট উপস্থাপন করেছিলাম। এটি ‘ স্মার্ট বাংলাদেশ, উন্নয়ন দৃশ্যমান, বাড়বে এবার কর্মসংস্থান’ স্লোগানে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারে স্থান পেয়েছে। এটি রাজশাহীবাসীর জন্য গর্বের বিষয়। এছাড়া সিটি মেয়রদের শপথ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজশাহীর প্রশংসা করে রাজশাহী নগরী দেখতে যেতে অন্য মেয়রদের বলেছিলেন।

সভায় স্বাগত বক্তব্য দেন রাসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এবিএম শরীফ উদ্দিন। মঞ্চে উপবিষ্ট ছিলেন রাসিকের প্যানেল মেয়র-১ ও ২১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিযাম উল আযিম, প্যানেল মেয়র-২ ও ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মমিন, প্যানেল মেয়র-৩ ও রাসিকের সংরক্ষতি ওর্য়াড নং -১ মোসাঃ তাহরো খাতুন মিলি, আরসিসি এমপ্লয়মেন্ট স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউটের কো-অর্ডিনেটর ও রাজশাহী কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ প্রফেসর মুহা: হবিবুর রহমান।

এরআগে নগর ভবনের ১০তলায় স্থাপিত রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন এমপ্লয়মেন্ট স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউটের কার্যক্রম ও ল্যাব পরিদর্শন করেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

এরআগে কাদিরগঞ্জে মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠন ও জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামানের সমাধীতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

স্মার্ট কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে দৃষ্টান্ত হবে রাজশাহী

আপডেট সময় : ০৬:০২:২১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২৪

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, ফ্রিল্যান্সিং খাত ভবিষ্যতে বাংলাদেশের বিদেশী মুদ্রা আয়ের বড় খাত হবে। রাজশাহীতে কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন এমপ্লয়মেন্ট স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। আগামীতে নগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে। এখানে তরুণ-তরুণীরা প্রশিক্ষণ নিয়ে ফ্রিল্যান্সিং করে অর্থ আয় করতে পারবে। অন্যান্য ক্ষেত্রের মতও ফ্রিল্যান্সিং খাত হতে ডলার আয় ও স্মার্ট কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে দৃষ্টান্ত হবে রাজশাহী।

রোববার (২১ জানুয়ারি) বিকেলে নগর ভবনের সিটি হলরুমে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর ও কর্মকর্তাদের সাথে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, এমপি। অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলককে শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান করেন রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।

সভায় মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, বিদেশী আয়ের খাত সমৃদ্ধ করতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী একটা দিক নির্দেশনা দিয়েছেন। ফ্রিলান্সিং খাত থেকে আগামী ৫ বছরে আয় ৫ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত করার জন্য প্রধানমন্ত্রী যে নির্দেশনা দিয়েছেন, সেটি হবে ইনশাল্লাহ। এই ধারা অব্যাহত থাকলে আগামীতে আয়ের অন্যতম একটা বৃহৎ খাতে পরিণত হবে।

রাসিক মেয়র লিটন আরো বলেন, আরসিসি এমপ্লয়মেন্ট স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউটে তরুণ-তরুণীদের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে। তারা দক্ষ হয়ে ফ্রিল্যান্সিং এর মাধ্যমে আয় করতে পারবে। আমরা আয়ের খাতও তাদের দেখিয়ে দেবো। আমাদের ইনস্টিটিউটের কার্যক্রম পরিপূর্ণ করতে তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী ৬০টি কম্পিউটার সেট প্রদানের ঘোষণা দেওয়ায় তাকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যে স্বপ্ন, আগামীতে বাংলাদেশ অন্যতম একটি ধ্বনী দেশে পরিণত হবে। আগামী ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ বির্নিমানের স্বপ্ন ইনশাল্লাহ বাস্তবায়ন হবে।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, আরসিসি এমপ্লয়মেন্ট স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা অনেক ভালো ও অসাধারণ একটি উদ্যোগ। এই মডেলটি সারা বাংলাদেশে ছড়িয়ে দেওয়া হবে। স্মার্ট কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে এটি উল্লেখযোগ্য ভুমিকা পালন করবে।

তিনি আরো বলেন, ফ্রিল্যান্সিং খাতে বাংলাদেশ বর্তমানে ১ দশমিক ৯ বিলিয়ন ডলার আয় করছে। প্রধানমন্ত্রী আগামী ৫ বছরে এ খাতে আয় ৫ বিলিয়ন ডলারে উন্নীতকরণের জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন। সেই লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি। ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের পর আমরা স্মার্ট বাংলাদেশের পথে এগিয়ে যাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন ভাই রাজশাহীকে সারাদেশের মধ্যে সেরা ও মডেল শহরে পরিণত করেছেন। সারা বাংলাদেশকে তাঁকে অনুসরণ করছে। তিনি প্রধানমন্ত্রীর নিকট হাইটেক পার্ক দাবি করেছিলেন। প্রধানমন্ত্রী রাজশাহীতে হাইটেক পার্ক করে দিয়েছেন। লিটন ভাই স্মার্ট রাজশাহী সিটি গড়তে উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। আগামীতে এই শিক্ষানগরী রাজশাহীকে সিলিকন সিটি ও স্মার্ট কর্মসংস্থানের নগরীতে হবে।

প্রতিমন্ত্রী পলক আরো বলেন, লিটন ভাইয়ের নির্বাচনী স্লোগান ছিল ‘উন্নয়ন দৃশ্যমান, এবার হবে কর্মসংস্থান। আওয়ামী লীগের ইশতেহার কমিটির সদস্য হিসেবে আমি এই স্লোগানটি আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার নিকট উপস্থাপন করেছিলাম। এটি ‘ স্মার্ট বাংলাদেশ, উন্নয়ন দৃশ্যমান, বাড়বে এবার কর্মসংস্থান’ স্লোগানে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারে স্থান পেয়েছে। এটি রাজশাহীবাসীর জন্য গর্বের বিষয়। এছাড়া সিটি মেয়রদের শপথ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজশাহীর প্রশংসা করে রাজশাহী নগরী দেখতে যেতে অন্য মেয়রদের বলেছিলেন।

সভায় স্বাগত বক্তব্য দেন রাসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এবিএম শরীফ উদ্দিন। মঞ্চে উপবিষ্ট ছিলেন রাসিকের প্যানেল মেয়র-১ ও ২১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিযাম উল আযিম, প্যানেল মেয়র-২ ও ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মমিন, প্যানেল মেয়র-৩ ও রাসিকের সংরক্ষতি ওর্য়াড নং -১ মোসাঃ তাহরো খাতুন মিলি, আরসিসি এমপ্লয়মেন্ট স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউটের কো-অর্ডিনেটর ও রাজশাহী কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ প্রফেসর মুহা: হবিবুর রহমান।

এরআগে নগর ভবনের ১০তলায় স্থাপিত রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন এমপ্লয়মেন্ট স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউটের কার্যক্রম ও ল্যাব পরিদর্শন করেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

এরআগে কাদিরগঞ্জে মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠন ও জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামানের সমাধীতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।