চরেও মিল-ফ্যাক্টরি করতে চান মাহি

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:৫৯:১০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ জানুয়ারী ২০২৪ ০ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

স্টাফ রিপোর্টার: সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলে চরেও মিল-কারখানা করতে চান রাজশাহী-১ (গোদাগাড়ী-তানোর) আসনের ট্রাক প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী ও ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। সোমবার সকালে গোদাগাড়ীর চর আষাড়িয়াদহ ইউনিয়নে গিয়ে ভোটারদের এ প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।
ভোটারদের উদ্দেশ্যে মাহি বলেন, ‘আমাকে শুধু একটা সুযোগ দিয়ে দেখেন, আমার মতোন সাহসী মানুষ একটাও এখানে দাঁড়ায়নি কিন্তু। আমি একটা মেয়ে মানুষ হয়ে যত সাহস রাখি, আপনারা সবাই যদি পাশে থাকেন তাহলে দেখবেন কি হয়! আমার ইচ্ছা আছে। আমি এই এলাকায় মিল করব, ফ্যাক্টরি করব যাতে আমার ভাইয়েরা এই এলাকায় কাজ করতে পারে। যেন কর্মসংস্থান হয়।’
এ সময় স্থানীয় লোকজন হাততালি দিতে থাকেন। ভিড়ের ভেতর থেকে এক ব্যক্তি মাহিকে প্রশ্ন করেন, ‘ভোট কি সঠিক হবে?’ মাহি বলেন, ‘ভোট শুধু একবার আপনারা দিয়ে দেখেন। সিল তো আপনার মারতে হবে।’ তখন আরেকজন বলেন, ‘সিল তো মারব। লাঠি দেখিয়ে কাইড়্যাহ লিবে না তো? এইডা ভয় আমারেহ। সিল হবে, চুরি যেন না হয়।’ মাহি বলেন, ‘আপনারা এখানে ১৬ হাজার মানুষ না? যদি ৫ হাজার জনও ভোট চুরি করতে আসে, আপনারা যদি তাদের ঘেরাও করেন তাহলে কেউ পারবে? পারবে না।’
মাহি বলেন, ‘গুণ্ডাবাহিনীকে সরিয়ে দিতে হবে। ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বের করে দিতে হবে আপনাদের। এই ভোটের দিনই একদিনই সুযোগ। আপনার সিল দিয়ে ভাগ্য পরিবর্তন করতে হবে। তা না হলে এই ভাঙা রাস্তা ভাঙাই থাকবে। গর্ভবতী মাকে যদি হাসপাতালে নিতে হয়, রাস্তায় শেষ!’
মাহির নির্বাচনী এলাকায় ভারতীয় সীমান্ত লাগোয়া শুধু এই ইউনিয়নটি চরাঞ্চল। যেতে হয় পদ্মা নদী পার হয়ে। এ ইউনিয়নে ভোটার প্রায় ১৬ হাজার। তাদের কাছে যেতে সকাল সকাল নৌকায় চড়ে বসেন মাহি। সঙ্গে ছিলেন স্বামী রকিব সরকার আর সমর্থকেরা। নৌকার ওপর দাঁড়িয়ে নিজের ট্রাক প্রতীক নিয়ে তারা ছবি তোলেন। ওপারে গিয়ে স্বামীর মোটরসাইকেলে ঘুরে বেড়ান এই গ্রাম থেকে আরেক গ্রাম। মাঝে মাঝে বাইকের বহর থামিয়ে বক্তব্য দেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

চরেও মিল-ফ্যাক্টরি করতে চান মাহি

আপডেট সময় : ০৪:৫৯:১০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ জানুয়ারী ২০২৪

স্টাফ রিপোর্টার: সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলে চরেও মিল-কারখানা করতে চান রাজশাহী-১ (গোদাগাড়ী-তানোর) আসনের ট্রাক প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী ও ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। সোমবার সকালে গোদাগাড়ীর চর আষাড়িয়াদহ ইউনিয়নে গিয়ে ভোটারদের এ প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।
ভোটারদের উদ্দেশ্যে মাহি বলেন, ‘আমাকে শুধু একটা সুযোগ দিয়ে দেখেন, আমার মতোন সাহসী মানুষ একটাও এখানে দাঁড়ায়নি কিন্তু। আমি একটা মেয়ে মানুষ হয়ে যত সাহস রাখি, আপনারা সবাই যদি পাশে থাকেন তাহলে দেখবেন কি হয়! আমার ইচ্ছা আছে। আমি এই এলাকায় মিল করব, ফ্যাক্টরি করব যাতে আমার ভাইয়েরা এই এলাকায় কাজ করতে পারে। যেন কর্মসংস্থান হয়।’
এ সময় স্থানীয় লোকজন হাততালি দিতে থাকেন। ভিড়ের ভেতর থেকে এক ব্যক্তি মাহিকে প্রশ্ন করেন, ‘ভোট কি সঠিক হবে?’ মাহি বলেন, ‘ভোট শুধু একবার আপনারা দিয়ে দেখেন। সিল তো আপনার মারতে হবে।’ তখন আরেকজন বলেন, ‘সিল তো মারব। লাঠি দেখিয়ে কাইড়্যাহ লিবে না তো? এইডা ভয় আমারেহ। সিল হবে, চুরি যেন না হয়।’ মাহি বলেন, ‘আপনারা এখানে ১৬ হাজার মানুষ না? যদি ৫ হাজার জনও ভোট চুরি করতে আসে, আপনারা যদি তাদের ঘেরাও করেন তাহলে কেউ পারবে? পারবে না।’
মাহি বলেন, ‘গুণ্ডাবাহিনীকে সরিয়ে দিতে হবে। ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বের করে দিতে হবে আপনাদের। এই ভোটের দিনই একদিনই সুযোগ। আপনার সিল দিয়ে ভাগ্য পরিবর্তন করতে হবে। তা না হলে এই ভাঙা রাস্তা ভাঙাই থাকবে। গর্ভবতী মাকে যদি হাসপাতালে নিতে হয়, রাস্তায় শেষ!’
মাহির নির্বাচনী এলাকায় ভারতীয় সীমান্ত লাগোয়া শুধু এই ইউনিয়নটি চরাঞ্চল। যেতে হয় পদ্মা নদী পার হয়ে। এ ইউনিয়নে ভোটার প্রায় ১৬ হাজার। তাদের কাছে যেতে সকাল সকাল নৌকায় চড়ে বসেন মাহি। সঙ্গে ছিলেন স্বামী রকিব সরকার আর সমর্থকেরা। নৌকার ওপর দাঁড়িয়ে নিজের ট্রাক প্রতীক নিয়ে তারা ছবি তোলেন। ওপারে গিয়ে স্বামীর মোটরসাইকেলে ঘুরে বেড়ান এই গ্রাম থেকে আরেক গ্রাম। মাঝে মাঝে বাইকের বহর থামিয়ে বক্তব্য দেন।