আগামীতে কারা কর্মকর্তাদেরও বিচার হবে: মিনু

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:৫৯:৫০ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০২৩ ০ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

স্টাফ রিপোর্টার: দেশের কারাগারগুলোতে মানবিক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে উল্লেখ করে বিএনপি চেয়ারপারসনের অন্যতম উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু বলেছেন, ‘কারাগারগুলোতে পরিকল্পিতভাবে বিএনপির নেতাকর্মীদের হত্যা করা হচ্ছে। যারা এই কারা কর্তৃপক্ষের ঊর্দ্ধতন ব্যক্তি আছেন, তাদের নাম থাকবে। “জনগণের সরকার” আসলে এই হত্যাকাণ্ডের বিচার হবে।’
সরকারকে অসহযোগিতা করার আহ্বানে শনিবার সকালে রাজশাহী মহানগরীর সাহেববাজার এলাকায় লিফলেট বিতরণ কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। মিনু বলেন, ‘গত ৫ দিন আগে আমাদের এক যুবদল নেতাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। গতরাতে জামায়াতে ইসলামীর দামকুড়া থানার আমিরকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। দেে সমস্ত জেলখানাগুলোতে মানবিক বিপর্যয়। থাকার জায়গা নাই, ঘুমানোর জায়গা নাই, পানি নাই, বাথরুম করার ব্যবস্থা নাই, খাদ্য খুবই নিম্নমানের এবং নির্মম নির্যাতন।’
তিনি বলেন, ‘দেশের মানুষ আসন্ন নির্বাচন বর্জন করবে। এই নির্বাচনে বাংলাদেশের জনগণ অংশগ্রহণ করবে না। বিএনপি যে নির্বাচনে নাই, বাংলাদেশের মানুষ সে নির্বাচনে নাই। রাজশাহী সদরের সাবেক মেয়র ও সাবেক এমপি হিসেবে বলতে পারি, বাংলাদেশে সবচাইতে কম ভোট হবে এখানে। এখানে কোন ভোটই পড়বে না। এখন ডিসির অফিস থেকে যদি ভুয়া ভোট করে দেয় সেটা তাদের ব্যাপার। জনগণ ভোট দিতে যাবে না।’
অসহযোগ আন্দোলনের সফলতা আসছে দাবি করে মিনু বলেন, ‘গতকাল ২২ কোটি হাজার কোটি টাকা বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে অন্যান্য ব্যাংকে নিয়েছে। আমরা আমাদের যা টাকা আছে তা তুলে নিয়ে সরকারকে অসহযোগিতা করছি। তার প্রমাণ ব্যাংকগুলোতে টাকা নাই। সরকারের শেষ সুযোগ ছিল জনগণের অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন করার। কিন্তু একজন ব্যক্তির শৈরাচারী শাসনকে দীর্ঘায়িত করার জন্য ভুয়া এবং ডামি নির্বাচন করা হচ্ছে।’
এ সময় রাজশাহী মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক এরশাদ আলী ঈশা, সিনিয়র সহ-সভাপতি নজরুল হুদা, যুগ্ম আহ্বায়ক শাফিকুল ইসলাম শাফিক, কৃষকদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আল-আমিন সরকার টিটু, যুবদলের রাজশাহী মহানগরের সাবেক সভাপতি আবুল কালাম আজাদ সুইট, মহানগর জিয়া পরিষদের আহ্বায়ক আকতার হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

আগামীতে কারা কর্মকর্তাদেরও বিচার হবে: মিনু

আপডেট সময় : ০৪:৫৯:৫০ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০২৩

স্টাফ রিপোর্টার: দেশের কারাগারগুলোতে মানবিক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে উল্লেখ করে বিএনপি চেয়ারপারসনের অন্যতম উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু বলেছেন, ‘কারাগারগুলোতে পরিকল্পিতভাবে বিএনপির নেতাকর্মীদের হত্যা করা হচ্ছে। যারা এই কারা কর্তৃপক্ষের ঊর্দ্ধতন ব্যক্তি আছেন, তাদের নাম থাকবে। “জনগণের সরকার” আসলে এই হত্যাকাণ্ডের বিচার হবে।’
সরকারকে অসহযোগিতা করার আহ্বানে শনিবার সকালে রাজশাহী মহানগরীর সাহেববাজার এলাকায় লিফলেট বিতরণ কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। মিনু বলেন, ‘গত ৫ দিন আগে আমাদের এক যুবদল নেতাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। গতরাতে জামায়াতে ইসলামীর দামকুড়া থানার আমিরকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। দেে সমস্ত জেলখানাগুলোতে মানবিক বিপর্যয়। থাকার জায়গা নাই, ঘুমানোর জায়গা নাই, পানি নাই, বাথরুম করার ব্যবস্থা নাই, খাদ্য খুবই নিম্নমানের এবং নির্মম নির্যাতন।’
তিনি বলেন, ‘দেশের মানুষ আসন্ন নির্বাচন বর্জন করবে। এই নির্বাচনে বাংলাদেশের জনগণ অংশগ্রহণ করবে না। বিএনপি যে নির্বাচনে নাই, বাংলাদেশের মানুষ সে নির্বাচনে নাই। রাজশাহী সদরের সাবেক মেয়র ও সাবেক এমপি হিসেবে বলতে পারি, বাংলাদেশে সবচাইতে কম ভোট হবে এখানে। এখানে কোন ভোটই পড়বে না। এখন ডিসির অফিস থেকে যদি ভুয়া ভোট করে দেয় সেটা তাদের ব্যাপার। জনগণ ভোট দিতে যাবে না।’
অসহযোগ আন্দোলনের সফলতা আসছে দাবি করে মিনু বলেন, ‘গতকাল ২২ কোটি হাজার কোটি টাকা বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে অন্যান্য ব্যাংকে নিয়েছে। আমরা আমাদের যা টাকা আছে তা তুলে নিয়ে সরকারকে অসহযোগিতা করছি। তার প্রমাণ ব্যাংকগুলোতে টাকা নাই। সরকারের শেষ সুযোগ ছিল জনগণের অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন করার। কিন্তু একজন ব্যক্তির শৈরাচারী শাসনকে দীর্ঘায়িত করার জন্য ভুয়া এবং ডামি নির্বাচন করা হচ্ছে।’
এ সময় রাজশাহী মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক এরশাদ আলী ঈশা, সিনিয়র সহ-সভাপতি নজরুল হুদা, যুগ্ম আহ্বায়ক শাফিকুল ইসলাম শাফিক, কৃষকদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আল-আমিন সরকার টিটু, যুবদলের রাজশাহী মহানগরের সাবেক সভাপতি আবুল কালাম আজাদ সুইট, মহানগর জিয়া পরিষদের আহ্বায়ক আকতার হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।