রাবির ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি, একজনের কারাদণ্ড

210

স্টাফ রিপোর্টার :  রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির দায়ে একজনকে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড অথবা ত্রিশ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট রনী খাতুন এ দণ্ডাদেশ প্রদান করেন। তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

আটক ওই যুবকের নাম মো. মুনসুর রহমান। তিনি রাজশাহীর বাঘা উপজেলার মনিগ্রাম এলাকার বাসিন্দা নিজাম উদ্দিনের ছেলে। তিনি রাবির ইতিহাস বিভাগের ২০১০-১১ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে ব্যবসায় অনুষদভুক্ত ‘বি-২’ গ্রুপের (অবাণিজ্য) পরীক্ষা শুরু হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের সৈয়দ ইসমাঈল হোসেন সিরাজী ভবনের ৪২৫ নম্বর কক্ষে আসল ভর্তিচ্ছু আল-আমিনের হয়ে প্রক্সি দিচ্ছিলো মুনসুর। পরীক্ষা চলাকালীন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর হল পরিদর্শনের সময় ওই কক্ষে মুনসুরের গতিবিধি সন্দেহ হওয়ায় তিনি তার কাগজপত্র যাচাই করেন। খবর পেয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট রনী খাতুন তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। জিজ্ঞাসাবাদে তার জালিয়াতির বিষয়টি ধরা পড়লে তাকে এ দণ্ড প্রদান করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর লুৎফর রহমান বলেন, ‘পরীক্ষার হল পরিদর্শনের সময় মুনসুরকে দেখে সন্দেহ হলে হল পরিদর্শক ও আমি তার কাগজপত্র দেখি। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে খবর দিলে তারা এসে তাকে আটক করেন।’

SHARE