রামেকে ডেঙ্গু আক্রান্ত গৃহবধূর মৃত্যু

23

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহীর পুঠিয়ায় ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে শাপলা খাতুন (২৩) নামের এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সোমবার দুপুর ১২টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। নিহত গৃহবধূ পুঠিয়া উপজেলার ধাদাস গ্রামের হাসিবুল ইসলামের স্ত্রী। তার বাবা রেজাউল করিম একই উপজেলার বারোপাখিয়া গ্রামের বাসিন্দা। দুই বছর আগে ধাদাস গ্রামের আমীর আলীর ছেলে হাসিবুলের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। রামেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস জানান, গত ২ সেপ্টেম্বর জ্বরে আক্রান্ত হন শাপলা খাতুন। ৪ সেপ্টেম্বর তাকে রামেক হাসপাতালে আনা হয়। হাসপাতালের ৩৮ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। জানতে চাইলে শাপলার স্বামী হাসিবুল ইসলাম কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, ‘আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর আমাদের বিয়ের দ্বিতীয় বর্ষপূর্তি হবে। ম্যারিজ অ্যানিভার্সারি করার জন্য দুজন কত পরিকল্পনা করেছিলাম। ডেঙ্গু জ্বরে সব শেষ হয়ে গেল!’ তিনি আরও বলেন, ‘আমার স্ত্রী বিগত এক বছরেও ঢাকায় যায়নি। এমনকি পাশের গ্রামের বাবার বাড়ি ছাড়া রাজশাহী শহরেও যায়নি। বাড়ি থেকেই শাপলা ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছে। আমরা সঙ্গে সঙ্গেই চিকিৎসকের কাছে গেছি। তবুও এমন হলো কেন?’ বলে কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি। এদিকে, শাপলা খাতুনের মরদেহ বিকেলে পুঠিয়ায় নিজ বাড়িতে নেওয়া হয়। বাদ আসর তার জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

SHARE