নগরীতে গরু ব্যবসায়ীকে হত্যা

27

স্টাফ রিপোর্টার : গরুর হাট থেকে ফেরার সময় গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে ট্রাকে উঠিয়ে বাবা ও চাচাকে বেঁধে যুবককে হত্যার পর তাদের কাছে থাকা আড়াই লাখ টাকা ছিনতাই করে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বুধবার দিবাগত রাতে রাজশাহীর কাটাখালী থানার কুখণ্ডী বাইপাস এলাকায় এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। হত্যাকান্ডের শিকার যুবকের নাম জরিপ মৃধা (৩৬)। তার বাড়ি নাটোরের সিংড়া উপজেলায়। বাবার নাম আলাল মৃধা (৬০)। চাচা মোশাররফ হোসেন। তারা গরু ব্যবসায়ী। পুলিশ জরিপ মৃধার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানান, জরিপ আলী মৃধা তার বাবা আলাল মৃধা ও চাচা মিনারুল ইসলামকে নিয়ে সিটি হাটে এসেছিলেন গরু কেনার জন্য। গরু কেনার জন্য তাদের কাছে আড়াই লাখ টাকা ছিলো। কিন্তু দামে দরে না হওয়ায় হাট থেকে গরু কিনতে পারেন নি। সন্ধ্যার পরে তারা সিটি হাট থেকে একটি ট্রাকে চড়ে সিংড়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। নগরীর নওদাপাড়া মোড়ে এসে ট্রাকের চালক আরো তিনজনকে ট্রাকে নেন। এর কিছুক্ষণ পর ওই তিনজন দুর্বৃত্ত অস্ত্রের মুখে তাদের মুখ বেঁেধ তাদের কাছে থাকা আড়াই লাখ টাকা তারা ছিনিয়ে নেয়। ছিনিয়ে নেয়ার সময় বাধা দিলে জরিপ আলীকে হাতুড়ি দিয়ে মাথায় আঘাত করে দুর্বৃত্তরা। সঙ্গে সঙ্গে মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়েন জরিপ আলী। এরপর তাদেরকে ফেলে দেয়ার স্থান খোঁজার জন্য দীর্ঘসময় ট্রাকটি নিয়ে তারা বিভিন্ন জায়গা ঘুরে। একপর্যায়ে কাটাখালীর কুখন্ডিতে তাদের ফেলে দিয়ে ট্রাকটি নিয়ে দুর্বৃত্তরা চলে যায়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে। রাজশাহীর কাটাখালী থানার ওসি জিল্লুর রহমান জানান, নাটোরের সিংড়া থেকে এরা তিনজন রাজশাহীর সিটি হাটে গরু কিনতে এসেছিলেন। তাদের কাছে প্রায় আড়াই লাখ টাকা ছিল। তারা গরু ব্যবসায়ী। সিটি হাট থেকে গরু কিনে তারা নাটোরে নিয়ে বিক্রি করেন। কিন্তু দামে পড়তা না পড়ায় গতকালকে হাট থেকে গরু না নিয়েই রাতে বাড়ি ফিরছিলেন। কোনো যানবাহন না পেয়ে তারা একটি ট্রাকে উঠে পড়েন। ট্রাকটি সিটি বাইপাস থেকে শাহমখদুম থানা এলাকায় পৌঁছালে আরও তিনজন ওই ট্রাকে ওঠে। এ সময় ওই তিন দুর্বৃত্ত জরিপের বাবা ও চাচাকে দড়ি দিয়ে বেঁধে ফেলে। এক পর্যায়ে মাথায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে জরিপের মাথায় আঘাত করা হয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এ সময় তার কাছে থাকা প্রায় আড়াই লাখ টাকা ছিনিয়ে নেয় দুর্বৃত্তরা। পরে বিভিন্ন এলাকা ঘুরে কুখণ্ডী বাইপাস এলাকায় গিয়ে ওই তিনজনকে ট্রাক থেকে ফেলে দেওয়া হয়। এ সময় কাটাখালি থানার একটি টহল টিম ওই রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিল। তারা ওই তিনজনকে পড়ে থাকতে দেখে কাছে যায় এবং সব ঘটনা জানতে পারে। পরে নিহত জরিপের লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে।ওসি জিল্লুর রহমান বলেন, যারা খুন-ছিনতাই করেছে, তারা সংঘবদ্ধ একটি চক্র। গভীর রাতে ট্রাক নিয়ে তারা ঘুরে বেড়ায়। তারা যাত্রী পারাপারের নামে লোক উঠিয়ে সুবিধাজনক স্থানে নিয়ে মারধর করে এবং টাকা ছিনতাই করে নামিয়ে দেয়। ঘটনার পর থেকে ওই ট্রাকটি খুঁজছে পুলিশ। এ ব্যাপারে বিভিন্ন থানায় বেতার বার্তা পাঠানো হয়েছে। ওসি আরও বলেন, এ ঘটনায় নিহতের বাবা আলাল মৃধা বেলা ১১টার দিকে বাদী হয়ে কাটাখালী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন এবং ময়না তদনত্ম শেষে লাশটি পরিবারের কাছে হসত্মানত্মর করা হয়েছে। তিনি জানান, এখন পর্যন্ত এ ঘটনায় কাউকে আটক করা যায়নি। তবে গতকাল রাত ১০ টায় শেষ খবর পাওয়া পর্যনত্ম তাদের সন্ধ্যান করতে পারেনি পুলিশ।

SHARE