দইয়ের মধ্যে ‘গ্যাস বড়ি’, পুরো পরিবার নিঃশেষ

127

নওগাঁ প্রতিনিধি : নওগাঁর মহাদেবপুরে খাদ্যে বিষক্রিয়ায় একই পরিবারের তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শনিবার উপজেলার উত্তরগ্রাম ইউনিয়নের চকযথুরী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, অর্জুন (৩২), তার স্ত্রী তিথী (২৫) এবং তাদের তিন বছরের মেয়ে অনন্যা। দইয়ের মধ্যে ‘গ্যাস বড়ি’ (অ্যালুমিনিয়াম ফসফাইট) মিশিয়ে অর্জন নামে এক যুবক (৩৩), তার স্ত্রী এবং তাদের ছোট্ট ছেলেকে মেরে ফেলার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল শনিবার সকালে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পর তাদের মৃত্যু হয়। এর আগে শুক্রবার (২৯ মার্চ) দিবাগত রাতে দইয়ের মধ্যে ‘গ্যাস বড়ি’ মিশিয়ে তাদের খাওয়ানো হয় বলে অভিযোগ করেন অর্জনের শাশুড়ি যমুনা রাণী। তিনি বলেন, বহুদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল অর্জনের ভাইদের মধ্যে। এর জের ধরে শুক্রবার রাতে অর্জনের ছোট ভাই অসিম তাদের ‘গ্যাস বড়ি’ মিশিয়ে দই খাওয়ান। অজান্তে এই দই খেয়ে রাতেই আমার মেয়ে তিথী (অর্জনের স্ত্রী-২৬) আমাকে ফোন করে জানায়, তাদের সবার পেট ব্যথা করছে। আমি তখন জানতে পারি, তাদের এই দই খাইয়েছেন অর্জনের ছোট ভাই। স্থানীয় উত্তরগ্রাম ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবিদ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সংবাদ পেয়েছি। আসলে কী কারণে মারা গেছে ঘটনাস্থলে না গেলে বলতে পারব না। মহাদেবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, ‘গ্যাস বড়ি’ খেয়ে তাদের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে আমাদের তদন্ত চলছে। মরদেহগুলো ময়নাতদন্তের পর বিস্তারিত জানা যাবে। স্থানীয়রা সকালে গুরুতর অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। এরপর অর্জন মারা যান রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে, তার স্ত্রী তিথী মারা যান মহাদেবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং তাদের আড়াই বছরের ছেলে অরণ্য মারা যায় নওগাঁ সদর হাসপাতালে। সবার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের ব্যবস্থা করা হবে বলে জানান ওসি।

SHARE