নির্বাচনে দাঁড়ানো নিয়ে কী বললেন সালমান খান?

147

গণধ্বনি ডেস্ক :আসন্ন লোকসভার নির্বাচনে তিনি প্রার্থী হচ্ছেন না। জল্পনা উড়িয়ে দিয়ে একথা জানালেন বলিউডের অভিনেতা সালমান খান।

ট্যুইট করে বৃহস্পতিবার নিজেই ভোটে দাঁড়ানোর জল্পনা খারিজ করে দিয়ে জানান ‘গুজবের পরিপ্রেক্ষিতে একথা বলতে চাই যে আমি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছি না বা কোন রাজনৈতিক দলের হয়ে প্রচারণাতেও অংশ নিচ্ছি না।’
মধ্যপ্রদেশ কংগ্রেসের তরফে ইন্দোরে দলের হয়ে সালমান খানকে প্রচারণায় অংশ নিতে অনুরোধ করা হয়েছে বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। রাজ্যের কংগ্রেস মুখপাত্র পঙ্কজ চতুবের্দী জানিয়েছিলেন ‘দলের হয়ে ইন্দোরে প্রচারণায় অংশ নেওয়ার জন্য আমাদের দলের নেতারা সালমানের সাথে যোগাযোগ করেছেন। আমরা নিশ্চিত যে তিনি আমাদের হয়ে প্রচারণায় অংশ নেবেন। এর পরই জল্পনা ছড়ায় তবে কি সালমান খানও রাজনীতিতে পা রাখতে চলেছেন।

উল্লেখ্য, ভারতের মধ্যপ্রদেশের সবচেয়ে বড় শহর ইন্দোর বরাবরই বিজেপির শক্তঘাঁটি বলে পরিচিত। ১৯৮৯ সালে এই কেন্দ্রেই মধ্যপ্রদেশের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী প্রকাশ চন্দ্র শেঠিকে পরাজিত করে নজর কেড়েছিলেন সুমিত্রা মহাজন। সেই থেকেই ওই কেন্দ্রটি দখলে রয়েছে বিদায়ী লোকসভার স্পিকারের।

অন্যদিকে, ইন্দোরের পালাসিয়া এলাকায় ১৯৬৫ সালে জন্মগ্রহণ করেন সালমান। ছোটবেলাটা এখানেই কাটানোর পর পরবর্তীতে মুম্বাইয়ে পাড়ি দেন তিনি। দেশজুড়েই সলমানের অসংখ্য ভক্ত রয়েছেন। কিন্তু ট্যুইট করে এই বিষয়টিতে নিজেই পানি ঢেলে দেন তিনি।

যদিও ২০০৯ সালে এই ইন্দোরের মেয়র নির্বাচনে কংগ্রেস প্রার্থী পঙ্কজ সাংভীর সমর্থনে একটি রোড শো-এ অংশ নিতে দেখা গিয়েছিল সলমানকে। এরপর ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনেও গুজরাটে ঘুড়ি উৎসবে যোগ দিতে দেখা যায় তাকে। ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দেশটির তৎকালীন বিজেপির প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী নরেন্দ্র মোদিও।

SHARE