নৌকায় ভোট না দেয়া মানে নিজের পায়ে কুড়াল মারা : মেয়র

156

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী সিটি করপোরেশনের (রাসিক) মেয়র ও রাজশাহী ১৪ দলের সমন্বয়ক এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, গত ১০ বছরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে যেভাবে এগিয়ে নিয়ে গেছেন এবং আরও উন্নয়নে যে পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন তা বাস্তবায়নের জন্য এই সরকারকে আবার ক্ষমতায় আনতে হবে। অন্য দল সরকার গঠন করলে দেশের কিছুই হবে না। তাই নৌকা প্রতীকে ভোট দিতে হবে। নৌকায় ভোট না দেয়ার মানে হবে নিজের পায়ে নিজেই কুড়াল মারা।

রাসিক কর্মচারী ইউনিয়নের এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। আসন্ন সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে বুধবার দুপুরে নগরীর একটি কমিউনিটি সেন্টারে এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়। সমাবেশে রাজশাহী-২ (সদর) আসনে ১৪ দল মনোনীত ও মহাজোট সমর্থিত প্রার্থী ফজলে হোসেন বাদশাও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।
মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, গত ১০ বছরে এমপি থেকে বাদশা ভাই নগরীর উন্নয়ন ত্বরান্বিত করেছেন। বিশেষ করে শিক্ষাক্ষেত্রে তার যে অবদান তা অসামান্য। তার হাত ধরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নতুন নতুন ভবন হয়েছে, অবকাঠামো তৈরি হয়েছে। শিক্ষানগরীর শিক্ষার মান উন্নয়নে তিনি কাজ করে গেছেন। আমি মেয়র আছি, আর বাদশা ভাই আবার এমপি হলে আমরা দুজনে মিলে রাজশাহীর উন্নয়নে আরও গতি আনতে পারব। বাদশা ভাই সংসদে কথা বলে উন্নয়নের জন্য টাকা আনবেন, আর আমি সিটি করপোরেশনের মাধ্যমে উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়ন করব।

রাসিক কর্মচারীদের নৌকা প্রতীকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়ে মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, আপনি নিজে নৌকায় ভোট দেবেন, পরিবারের সদস্যদের বলবেন। আপনারা পাড়া-মহল্লায় নেমে পড়ুন। নৌকায় ভোট দিতে বলুন। কারণ, আপনারা জানেন বিএনপি প্রার্থী মিজানুর রহমান মিনু সিটি করপোরেশনের মেয়র ছিলেন। রাজশাহীর উন্নয়নের জন্য তিনি কিছুই করতে পারেননি। বিএনপি নেতা মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলও মেয়র ছিলেন। তার আমলে আপনারা বেতন পর্যন্ত পাননি। আপনাদের বেতনের ব্যবস্থা করেছিলেন আমাদের প্রার্থী বাদশা ভাই। তাই আপনারা তার পাশে থাকুন। নৌকায় ভোট দিয়ে তাকে নির্বাচিত করুন।

সমাবেশে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, দেশের মানুষ বুঝে গেছে উন্নয়নের স্বার্থে ডিজিটাল বাংলাদেশের কারিগর শেখ হাসিনাকেই প্রধানমন্ত্রী হিসেবে প্রয়োজন। আমরা তাকেই প্রধানমন্ত্রী হিসেবে চাই। সে জন্য নৌকা প্রতীকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানাই। আমি নির্বাচিত হতে পারলে সব সময় আপনাদের দুঃখ-দুর্দশায় পাশে থাকব, যেমনটি অতীতে ছিলাম।

সমাবেশে রাসিকের প্যানেল মেয়র-১ সরিফুল ইসলাম বাবু, প্যানেল মেয়র-২ রজব আলী, প্যানেল মেয়র-৩ তাহেরা খাতুন মিলি, সাবেক দায়িত্বপ্রাপ্ত মেয়র ও বর্তমানের ২১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নিযাম-উল-আযীম, ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আবদুল মোমিন, ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সভাপতিত্ব করেন রাসিক কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি দুলাল শেখ। পরিচালনায় ছিলেন সাধারণ সম্পাদক আজমীর আহমেদ মামুন।

SHARE