মধ্যচরে পুলিশ পেটানো মামলায় ৯১ জন আসামি

198

স্টাফ রিপোর্টার :রাজশাহীর  কাটাখালি থানার খিদিরপুর মধ্যচর এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযানের সময় পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে গোয়েন্দা পুলিশের এসআই মেহেদি হাসান বাদি হয়ে কাটাখালি থানায় মামলাটি দায়ের করেন।
এব্যাপারে কাটাখালি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নিবারণচন্দ্র বর্মন জানান, মামলায় ৯১ জনকে আসামি করা হয়েছে। এর মধ্যে ৪১ জনের নাম উল্লেখ করা হয়। বাকি ৫০ জন অজ্ঞাত আসামি করে মামলাটি দায়ের করা হয়েছে। এ মামলায় আট জনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে বলে জানান পুলিশ এ কর্মকর্তা।
উল্লেখ্য, গত সোমবার রাত ৮টার দিকে পবা উপজেলার কাটাখালি থানার খিদিরপুর মধ্যচর এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযানের সময় গোয়েন্দা পুলিশের উপর হামলা করে মাদক ব্যবাসয়ীরা। এতে এক এএসআইসহ দুই পুলিশ আহত হন। এ ঘটনায় আহত এএসআই মাহাবুব হোসেন ও কনস্টেবল সুজনকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর চর এলাকাসহ আশে পাশের এলাকায় আসামিদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে। বাকি আসামিদের খুব শিগগিরই আটক করা হবে বলে জানান ওসি। উল্লেখ্য গত সোমবার সন্ধ্যায় মহানগর ডিবি পুলিশের এএসআই মাহবুবসহ ৭ জন সদস্য শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী আক্কাসকে ১০০ বোতল ফেন্সিডিলসহ আটক করলে অন্য মাদক ব্যবসায়ীরা ডিবি পুলিশকে মারপিট করে আক্কাসকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। ঘটনার পর থেকে চরে অভিযান চালিয়ে ৮ জনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।
এদিকে, পুলিশ আতঙ্কে পুরুষ শূন্য হয়ে পড়েছে খিদিরপুর মধ্যচর। ঘটনার পর রাতেই গ্রামটি পুরুষ শূন্য হয়ে পড়ে। সোমবার সকাল থেকে নারীদেরকেও গ্রাম ছাড়তে দেখা গেছে। তারা নদী পার হয়ে আত্মীয় স্বজনদের বাড়িতে আশ্রয় নিচ্ছেন। তবে ঘটনার পর পুলিশ গিয়ে চিরুনি অভিযান ও বাড়ি বাড়ি তল্লাশির নামে লুটপাট করেছে বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয়রা।

SHARE