বিভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হলো আ.লীগ

163

জিল্লুর রহমান : রাজশাহী-৪ (বাগমারা) আসনে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরেই ছিল বিরোধ। দলের মধ্যে সৃষ্টি হয়েছিল দুটি বলয়। একটি আসনটির বর্তমান এমপি ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হকের, অন্যটি মনোনয়ন প্রত্যাশী নেতা উপজেলা চেয়ারম্যান জাকিরুল ইসলাম সান্টু ও তাহেরপুর পৌরসভার মেয়র আবুল কালাম আজাদের। এবার তারা দলীয় মনোনয়ন ফরমও কিনেছিলেন।

তবে শেষ পর্যন্ত মনোনয়ন পেয়েছেন আসনটির টানা দুইবারের এমপি ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক। তাকে মনোনয়ন দেয়ার পর দেখা দেয় আরও উত্তেজনা। খুন হন এক যুবলীগ নেতা। তবে শেষ পর্যন্ত বিভেদ ভুলে এক হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সব নেতা। তারা এখন নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে মাঠে নামছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বাগমারার ভবানীগঞ্জের একটি কোচিং সেন্টারে দলীয় একটি সভা করেন উপজেলা চেয়ারম্যান জাকিরুল ইসলাম সান্টু। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক এমপি। সেখানে মেয়র আবুল কালাম আজাদও উপস্থিত হন। সান্টু ও কালামসহ দলীয় নেতারা এমপিকে ফুলের নৌকা উপহার দেন। অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের সব নেতা হাতে হাত ধরে নৌকার বিজয়ের জন্য কাজ করার অঙ্গীকার করেন।

এর আগে ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক বলেন, রাজনীতি একটা জনসেবা। আর আওয়ামী লীগ সরকার তা ভালোভাবেই করেছে। তাই রাজনীতি করতে হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তের বাইরে যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। ভেদাভেদ ভুলে সব নেতা নৌকার পক্ষে ঐক্যবদ্ধ হওয়ায় তিনি সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, বাগমারায় এবারও নৌকার জয় কেউ ঠেকাতে পারবে না।

সভায় উপস্থিত ছিলেন ভবানীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আব্দুল মালেক মণ্ডল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আহসান হাবিব, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক গোলাম সারওয়ার আবুল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিরাজ উদ্দীন সুরুজ, সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল হোসেন, শ্রীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মকবুল হোসেন প্রমুখ।

SHARE