হিরোর বিরুদ্ধে ‘ষড়যন্ত্র’ কে করলো?

238

গণধ্বনি ডেস্ক : বগুড়ার বহুল আলোচিত আশরাফুল ইলাম আলমের (হিরো আলম) মনোনয়ন বাতিলকে ‘ষড়যন্ত্র’ হিসেবে দেখছেন তিনি। এ জন্য তিনি উচ্চ আদালতে আপিল করবেন বলে জানিয়েছেন।

হিরো আলম বগুড়া-৪ আসন থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনের জন্য মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। কিন্তু রোববার বগুড়া রিটার্নিং কর্মকর্তা তার মনোনয়ন বাতিল ঘোষণা করেন। মনোনয়নপত্রের সঙ্গে ভোটারদের যে স্বাক্ষর তিনি জমা দিয়েছেন সেখানে অনেকের স্বাক্ষর নেই বলে তার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা।

কিন্তু হিরো আলম গণমাধ্যমের কাছে অভিযোগ করে বলেছেন, ‘আমার নির্বাচনী এলাকার ১ শতাংশ ভোটারের স্বাক্ষর হয় ৩ হাজার ১০০ জনের। আমি ৩ হাজার ৫০০ ভোটারের স্বাক্ষর জমা দিয়েছি। এর মধ্যে তারা ১০ জনের স্বাক্ষর যাচাই-বাছাই করেন। তাদের মধ্যে তিনজনের স্বাক্ষর ঠিক নেই বলে জানিয়েছিলেন।’

তিনি বলেন, ‘কিন্তু গতকাল রাত ১১টার দিকে আমাকে বলা হয়, ওই ১০ জনের মধ্যে পাঁচজনের স্বাক্ষর ঠিক নেই। এটা আমার কাছে ষড়যন্ত্র মনে হয়েছে। আমার ক্ষমতা নেই, থাকলে মনোনয়ন বাতিল করা হতো না। আমার প্রতি অবিচার করা হয়েছে।’

তবে রিটার্নিং কর্মকর্তা বলছেন, নির্ধারিত ১০ জনের মধ্যে একজনের তথ্যের গরমিল থাকলেই মনোনয়নপত্র বাতিল হয়। তার ক্ষেত্রে (হিরো আলমের) একাধিক গরমিল রয়েছে। এখানে ষড়যন্ত্রের কিছু নেই। ইচ্ছা করলে তিনি আপিল করতে পারবেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তার ‘ষড়যন্ত্রের কিছু নেই’ বক্তব্য মানতে রাজি নয় হিরো আলম। তিনি বলেন, ‘আমি নিয়ম মেনেই সব দাখিল করেছিলাম। কিন্তু ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। কোনো ষড়যন্ত্রে মাঠ ছাড়ব না। আপিল করব। আগেই বলেছিলাম, শেষ দিন পর্যন্ত মাঠে থাকব, এখনো সে সিদ্ধান্তে অটল রয়েছি।’

SHARE