করোনায় আইপিএল হলে, ঢাকা লিগ কেন নয়?

31

অনলাইন ডেস্ক : শ্রীলংকান ক্রিকেট বোর্ডের দেয়া কঠিন শর্তে সফরে যেতে রাজি নয় বাংলাদেশ দল। লংকান ক্রিকেট বোর্ড যদি শর্ত শিথিল না করে তাহলে সফর অনিশ্চিত। লংকান সফর স্থগিত হলে চারটি দলকে নিয়ে বিকেএসপিতে নতুন কোনো টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে চায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

তবে ক্রিকেট বিশ্লেষকদের অনেকেই বলছেন, শ্রীলংকা সফর না হলে নতুন কোনো টুর্নামেন্ট আয়োজন না করে বরং করোনায় বন্ধ হয়ে যাওয়া ঢাকা লিগ ফের চালু করলেই ভালো হয়।

এ ব্যাপারে যুগান্তরের সঙ্গে একান্ত আলাপে শুক্রবার রাতে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল বলেছেন, শ্রীলংকা সফর না হলে বিসিবি চাইলেই বন্ধ হয়ে যাওয়া ঢাকা লিগটা চালু করতে পারে। চারটি দল নিয়ে নতুন করে কোনো টুর্নামেন্ট আয়োজন না করে বরং ঢাকা লিগ করলেই আমার মনে হয় ভালো হতো।

ঢাকা লিগ শুরু হয়েও করোনার কারণে মার্চে বন্ধ হয়ে যায়। লিগ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় লোকাল অনেক ক্রিকেটারের রুটি-রুজির পথ বন্ধ হয়ে গেছে। দেশের শতাধিক ক্রিকেটার অধীর আগ্রহে বসে আছেন বন্ধ হয়ে যাওয়া ঢাকা লিগটা আবার কবে চালু হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে এ বছর ঢাকা লিগে শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাবের হয়ে খেলা মোহাম্মদ আশরাফুল বলেছেন, ভারত যদি বিভিন্ন দেশের ক্রিকেটারদের নিয়ে করোনার মধ্যেই আইপিএল আয়োজন করতে পারে তাহলে আমরা কেনো নিজেদের ক্রিকেটারদের নিয়ে ঢাকা লিগ চালু করতে পারব না? তাছাড়া অন্যান্য দেশের মতো আমাদের এখানে করোনাভাইরাস তেমন প্রভাব বিস্তার করেনি। আমার মনে হয় ঢাকা লিগটা চালু করলেই ভালো হয়।

শুক্রবার বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান বলেছেন, যদি শ্রীলংকা সফর না হয়, তাহলে বিকেএসপিতে চার দলের একটি টুর্নামেন্ট আয়োজন করা হতে পারে। বিকেএসপিতে সব সুযোগ-সুবিধা আছে, চারটি দলকে একসঙ্গে রাখা কোনো সমস্যা হবে না। তবে ১২ দলের ঢাকা লিগ চালু করা এখন সম্ভব নয়।

আকরাম খানের কথায় স্পষ্ট, ঢাকা লিগের ১২টি দলকে করোনার এই কঠিন সময়ে নিরাপদ-সুরক্ষিত স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় রাখা সম্ভব নয়। অথচ এই কঠিন সময়েই ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই) বিভিন্ন দেশের অসংখ্য ক্রিকেটারকে নিরাপত্তা বলয়ে রেখে ৮ দলের আইপিএল আয়োজন করছে। অথচ বিসিবি স্থানীয় ক্রিকেটারদের নিয়ে ঢাকা লিগ চালু করতেই ভয় পাচ্ছে!

SHARE