রাজশাহীতে তোপের মুখে কাদের সিদ্দীকি

193

স্টাফ রিপোর্টার : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আর জিয়াউর রহমানের যে দ্বন্দ্ব, এই দ্বন্দ্ব করে যারা দেশকে লুটেপুটে খাচ্ছে, আল্লাহ যদি আমাকে সময় দেয়- তাহলে শেখ মুজিব আর জিয়াউর রহমানের দ্বন্দ্ব আমি ঘুচিয়ে দেবো ইনশাল্লাহ। গতকাল শুক্রবার বিকেলে রাজশাহীর মাদ্রাসা মাঠে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের জনসভায় এই মন্তব্য করায় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের তোপের মুখে পড়েন কৃষক-শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দীকি।
জনসভা শেষ করে কাদের সিদ্দীকি কুমারপাড়া নগর আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে দিয়ে গাড়ি নিয়ে যাচ্ছিলেন। ওই সময় আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীরা তার বিরুদ্ধে শ্লোগান দিতে থাকেন। এ অবস্থায় সেখানে গাড়ি থেকে বের হয়ে আসেন কাদের সিদ্দীকি। এরপর আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীরা বলেন, আপনি বেঈমান-মীরজাফর। আপনাকে আমরা ঘৃণা করি। বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে জিয়াউর রহমানের তুলনা করে আপনি অপরাধ করেছেন। ক্ষমা চাইতে হবে। পরে পুলিশ এসে তাকে গাড়িতে তুলে দেয়।
এ ব্যাপারে মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি রকি কুমার ঘোষ বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে তার মত ব্যক্তির সাথে ছাত্রলীগের ছেলেরা এ ধরণের কাজ করার কথা নয়।
এ বিষয়ে মোবাইল ফোনে বঙ্গবীর কাদের সিদ্দীকি বলেন, পথে কয়েকজন ছেলে আমাদের গালাগালি করছিলো। লোক জড়ো হয়েছিলো। পরে আমরা চলে এসেছি। আমি সারাজীবন দেশের জন্য কাজ করেছি। বঙ্গবন্ধুকেই বাংলাদেশ মনে করি। ভালবাসি। বঙ্গবন্ধুকে জিয়াউর রহমানের সঙ্গে এক করিনি। বঙ্গবন্ধু দেশের নেতা, জাতির পিতা।
এদিকে, এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে রাজশাহী মহানগর বিএনপি। রাতে এক বিজ্ঞপ্তিতে দলটির পক্ষ থেকে বলা হয়, একজন দেশবরেণ্য বীর মুক্তিযোদ্ধার প্রতি এহেন দাম্ভিক ও অশালিন আচরণ নিন্দনীয়।

SHARE