নগরীতে যথাযোগ্য মর্যাদায় জেলহত্যা দিবস পালিত

140

স্টাফ রিপোর্টার : যথাযোগ্য মর্যাদায় রাজশাহীতে জেলহত্যা দিবস পালিত হয়েছে। গভীর শোক আর শ্রদ্ধায় স্মরণ করা হয়েছে শহীদ জাতীয় চার নেতাকে। দিবসটিতে গতকাল শনিবার সকালে জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে মহানগরীর কুমারপাড়াস্থ দলীয় কার্যালয়ের পাশে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি মেয়র খায়রুজ্জামান লিটনের নেতৃত্বে পুষ্পস্তর্বক অর্পন করে মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে নগরীতে একটি শোক র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিতে নেতৃত্বে দেন জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামানের সন্তান, নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। র‌্যালিতে দলের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা অংশ নেন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠসহচর, মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান হেনার কবরে পুষ্পস্তবক অর্পন করেছেন শহীদ কামারুজ্জামানের সুযোগ্য সন্তান, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের অন্যতম সদস্য, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। গতকাল দুপুর ১২টায় মহানগরীর পারিবারিক কবরস্থানে পরিবারের সদস্যবৃন্দ ও দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে পুষ্পস্তর্বক অর্পন করেন তিনি। এ সময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, শহীদ কামারুজ্জামানসহ জাতীয় চার নেতা ও মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। জানা গেছে, শহীদ কামারুজ্জামানসহ আজকের দিনে শহীদ জাতীয় চার নেতার মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে গতকাল সকাল নয়টায় মেয়রের উপশহরস্থ বাসভবনের পাশের প্যান্ডেলে রাজশাহী উলামা কল্যান পরিষদ আয়োজিত দোয়া মাহফিলে অংশ নেন শহীদ কামারুজ্জামানের সন্তান মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মেয়রপত্নী মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি বিশিষ্ট সমাজসেবী শাহীন আকতার রেনী, মেয়রকন্যা কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সদস্য সাবেক সহ-সভাপতি আনিকা ফারিহা জামান অর্ণা। এ সময় মহানগর যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, ছাত্রলীগ, শ্রমিকলীগসহ অন্যান্য অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ শহীদ কামারুজ্জামানের কবরে পুষ্পস্তর্বক অর্পন করে। এ সময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, শহীদ কামারুজ্জামানসহ জাতীয় চার নেতা ও মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। এরপর শহীদ কামারুজ্জামানের মাজারের পাশে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন মহানগর ছাত্রলীগ আয়োজিত রক্তদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। এছাড়া দিবসটি উপলক্ষে মহানগরীর আলুপট্টিসহ বিভিন্ন স্থানে মানবভোজসহ বিভিন্ন কর্মসুচির আয়োজন করা হয়। কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন মেয়রপত্নী মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি বিশিষ্ট সমাজসেবী শাহীন আকতার রেনী, মেয়রকন্যা কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সদস্য সাবেক সহ-সভাপতি আনিকা ফারিহা জামান অর্ণা, মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, সহ-সভাপতি মাহফুজুল আলম লোটন, অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা, মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল, শাহাদত হোসেন, নিঘাত পারভীন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক, সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. আসলাম সরকার, আসাদুজ্জামান আসাদসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ, মহানগর যুবলীগের সভাপতি রমজান আলী, সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন বাচ্চু, মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আব্দুল মমিন, সাধারণ সম্পাদক জেডু সরকার, মহানগর ছাত্রলীগ সভাপতি রকি কুমার ঘোষসহ মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, যুব মহিলা আওয়ামী লীগ, মহানগর ছাত্রলীগসহ অন্যান্য অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এদিকে দিবস উপলক্ষে সকালে নগরীর কাদিরগঞ্জে শহীদ কামারুজ্জামানের সমাধিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করে জেলা আওয়ামী লীগ। এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদসহ অন্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। পরে জেল হত্যা দিবসে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে নানা কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। শনিবার সকাল থেকে নগরীর লক্ষ্মীপুরে জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে এসব কর্মসূচি পালন করা হয়। দিবসের শুরুতে সকালে শোক র‌্যালী, দুপুরে দলীয় কার্যালয়ে দোয়া মাহফিল ও দু:স্থদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়। গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ৯টায় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদের নেতৃত্বে শোক র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালিটি লক্ষ্মীপুর থেকে শুরু হয়ে কাদিরগঞ্জ হয়ে জাতীয় চার নেতার কবরস্থানে উপস্থিত হয়। এসময় জাতীয় চার নেতার কবরস্থানে পুস্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এরপর দুপুরে দলীয় কার্যালয়ে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। দোয়া মাহফিলে বঙ্গবন্ধুসহ জাতীয় চার নেতার রুহের মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করা হয়। এরপর লক্ষ্মীপুর মোড়ে দু:স্থ মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়। খাবার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, সহ-সভাপতি বেগম আখতার জাহান এমপি, অধ্যাপক জিনাতুন নেসা তালুকদার, বদরুজ্জামান রবু, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট লায়েব উদ্দীন লাভলু, অধ্যক্ষ মোস্তাফিজুর রহমান মানজাল, কামরুজ্জামান চঞ্চল, সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম আসাদুজ্জামান, আলফোর রহমান, আহসান উল হক মাসুদ, জেলার দপ্তর সম্পাদক ফারুক হোসেন ডাবলু, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা সিরাত উদ্দিন শাহীন, বন ও পরিবেশ সম্পাদক এডভোকেট এহেসান উদ্দিন শাহিন, জেলা যুবলীগের সভাপতি আবু সালেহ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলী আজম সেন্টু, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মর্জিনা পারভিন, জেলা কৃষকলীগের সভাপতি রবিউল ইসলাম বাবু, সাধারণ সম্পাদক তাজবুল ইসলাম, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি রোকনুজ্জামান রিন্টু, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান রানা, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবিব প্রমুখ। এরপর সকাল সাড়ে ১০টায় শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান সরকারি ডিগ্রি কলেজে শহীদ কামারুজ্জামানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন, শহীদ কামারুজ্জামান কর্ণার এবং শহীদ কামারুজ্জামানের জীবনভিত্তিক আলোকচিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন। জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান-২ রবিউল আলমের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য দেন- প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান হাবিব, জেলা পরিষদের সদস্য গোলাম মোস্তফা, রাজশাহী ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড সার্ভে ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ মাহাবুবুর রহমান প্রমুখ। সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডের সদস্য কৃষ্ণা দেবীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত এ সভায় জেলা পরিষদের সকল সদস্য, নারী সদস্য ও কর্মকর্তা-কর্মচারিরা উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা শেষে জেলা পরিষদ মসজিদের ঈমাম নাহিদ ইসলাম ১৯৭৫ সালের ৩ নভেম্বর শহীদ জাতীয় চার নেতার আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া পরিচালনা করেন। অপরদিকে জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু পরিষদ রাজশাহী জেলার উদ্যোগে গতকাল শনিবার বিকাল ৪:৩০ মিনিটে আলুপট্টিস্থ বঙ্গবন্ধু চত্বরে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি ও রা.বি. সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. আবদুল খালেক। আলোচনা সভায় বক্তৃতা করেন প্রফেসর মুহম্মদ নূরুল্লাহ্, প্রফেসর ড. আনন্দ কুমার সাহা, প্রফেসর ড. মো. আবুল কাশেম, অধ্যাপিকা জিন্নাতুন নেছা তালুকদার, অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা, ডা. এম. তবিবুর রহমান সেখ, মুক্তিযোদ্ধা বরজাহান আলী প্রমুখ। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু পরিষদের সদস্য প্রফেসর মো. আনসার উদ্দীন, এ. কে. এম. শওকত উদ্দীন (রেন্টু), মো. আব্দুল কুদ্দুস, ড. নাসরীন লুবনা, হাসান ঈমাম সুইট, জামসেদ হোসেন টিপু সহ আরো অনেকে। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন বঙ্গবন্ধু পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বঙ্গবন্ধু কলেজের উপাধ্যক্ষ জনাব কামরুজ্জামান।

SHARE