‘টেস্টে পরীক্ষা বা আত্মতুষ্টির সুযোগ নেই’

176

অনলাইন ডেস্ক : ওয়ানডে সিরিজে জিম্বাবুয়েকে ৩-০ ব্যবধানে হারিয়েছে বাংলাদেশ টাইগাররা। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে জয়, এশিয়া কাপের ফাইনাল খেলার পর জিম্বাবুয়েকে হোয়াইটওয়াশ করা প্রত্যাশাই ছিল। টেস্ট সিরিজেও বাংলাদেশ দল মাহমুদুল্লাহ নেতৃত্ব জয় নিশ্চিত করতে চাই। কিন্তু মাথার ওপর ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে গিয়ে টেস্টে বিধ্বস্ত হওয়ার স্মৃতি টনটন করছে। ওদিকে সাকিব-তামিম দলে নেই। আর তাই বাংলাদেশ দল প্রথম টেস্টে খুব বেশি পরীক্ষা-নিরীক্ষায় যাবে না বলে জানান টেস্টে অধিনায়কের দায়িত্ব পাওয়া মাহমুদুল্লাহ।

শনিবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে গড়াবে প্রথম টেস্ট ম্যাচ। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওই ম্যাচ বেল বাজিয়ে শুরু হবে। সিলেটের দর্শকরাও মেতেছেন নানান শুভাযাত্রায়। কিন্তু বাংলাদেশ দলের আত্মতুষ্টিতে ভোগার সুযোগ নেই। মাহমুদুল্লাহ বলেন, ‘আমরা টেস্টে ইতিবাচক ফল আনার জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টাটাই করবো। ওয়ানডে সিরিজে জয় পেয়েছি আর তাই টেস্টে সিরিজ নিয়ে আমরা আত্মবিশ্বাসী। টেস্ট ক্রিকেটে প্রত্যেকটি সেশন গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের প্রত্যেক সেশনের ছোট ছোট লক্ষ্যগুলো পূরণের ব্যাপারটি নিশ্চিত করতে হবে।’

মাহমুদুল্লাহ মতে, জিম্বাবুয়ে ছোট দল নয়। বাংলাদেশ ওয়ানডে ফরম্যাটে তাদের থেকে ভালো খেলেছে বলেই জিতেছে। আর তাই টেস্ট সিরিজের আগে তাদের ছোট করে দেখার সুযোগ নেই। সাকিবের অনুপস্থিতে টেস্টের নেতৃত্ব পাওয়া মাহমুদুল্লাহ বলেন, ‘ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ভালো করতে হলে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ভালো খেলার বিকল্প নেই। জিম্বাবুয়ে কোন দুর্বল প্রতিপক্ষ নয়। বরং আমরা ওয়ানডে সিরিজে তাদের থেকে ভালো খেলেছি। টেস্ট সিরিজেও আমাদের সেটা ঠিকঠাক প্রয়োগ করতে হবে।’

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের দলে চারটি নতুন মুখ আছে। তাদের কেউ সুযোগ পাবেন কিনা। বোলিং আক্রমণে সিলেটের দুই পেসার আবু জায়েদ ও খালেদ আহমেদ থাকবেন কিনা। মুস্তাফিজকে বিশ্রাম দেওয়া হবে কিনা। মোহাম্মদ মিঠুন কিংবা নাজমুল হোসেন শান্তরা সুযোগ পাবেন কিনা এগুলো ম্যাচের আগে বড় প্রশ্ন। তবে মাহমুদুল্লাহ জানালেন প্রথম টেস্টে কোন পরীক্ষা চালাতে চান না তিনি, ‘প্রথম টেস্টে আমরা খুব বেশি পরীক্ষা-নিরীক্ষার পথ বেছে নেবো না। আমাদের সম্ভব্য সেরা দল নিয়ে মাঠে নামবো। কারণ প্রথম ম্যাচটি আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সিরিজের গতি ঠিক করে দেবে এটা। আমরা সবসময়ই বিশ্বাস করি যে, শুরু ভালো হলে সেই আত্মবিশ্বাস ধরে আমরা সামনে এগোতে পারবো।’

SHARE