রাবিতে শিক্ষার্থীদের অনশন, অসুস্থ ১০

30

রাবি প্রতিনিধি : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) পপুলেশন সায়েন্স এন্ড হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলপমেন্ট বিভাগের নাম ‘ফলিত পরিসংখ্যান’ করার দাবিতে শিক্ষার্থীদের আমরণ অনশনের চব্বিশ ঘণ্টা পার হয়েছে। অনশনে এ পর্যন্ত ১০ জন শিক্ষার্থী অসুস্থ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১২ টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত তাদের কর্মসূচি অব্যাহত রয়েছে। বুধবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টা থেকে শিক্ষার্থীরা আমরণ অনশন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা।

অসুস্থ শিক্ষার্থীরা হলেন- মোবাশশির উল্লাহ, সোহাগ, নিশি খাতুন, আবিদ হাসান ও তপশ্রী শারনাল, আয়নাল, সাগর সরকার, লিজা আক্তার, সুলেখা আক্তার এবং আরিফ। এদের মধ্যে তিনজন রাতে এবং বাকীরা আজ সকালে অসুস্থ হয়ে পড়ে। তারা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বলে জানা গেছে।

অনশনরত পপুলেশন সায়েন্স এন্ড হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলপমেন্ট বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী জিমরান সাকিব বলেন, আমাদের দ্বিতীয় দিনের অনশন চলছে। এখন কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। তারা আগের মতোই কেবল আশ্বাস দিয়ে চলেছেন। বিভাগ পরিবর্তনের ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত আমাদের অনশন চলবে।

এদিকে, বৃহস্পতিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক লায়লা আরজুমান বানু এসে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেছেন। এ সময় তিনি দাবি মেনে নেওয়ার বিষয়ে আশ্বস্ত করে অনশন স্থগিত করার আহ্বান জানালেও শিক্ষার্থীরা তাতে রাজি হননি।

জানতে চাইলে ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক লায়লা আরজুমান বানু বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন গুরুত্বের সাথে তাদের দাবি বিবেচনা করছে। এ নিয়ে আমরা কয়েকবার বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সাথে কথাও বলেছি। উপাচার্য এখন ঢাকায় আছেন। তিনি ক্যাম্পাসে আসলেই এ নিয়ে আমরা আলোচনায় বসবো। উপাচার্য আসা পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের অনশন স্থগিত রাখতে অনুরোধ করেছি। কিন্তু তারা শুনেনি।

প্রসঙ্গত, পিএসসি’তে বিষয় কোড অন্তর্ভূক্ত করার দাবিতে গত ১৯ জানুয়ারি থেকে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে মানববন্ধন, অবস্থান কর্মসূচিসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছে ওই বিভাগের শিক্ষার্থীরা। পরে বিভাগের নাম পরিবর্তনের দাবিতে আন্দোলন শুরু করে। বর্তমানে বিভাগের নাম পরিবর্তন করে ‘ফলিত পরিসংখ্যান’ করার দাবিতে আমরণ অনশন শুরু করেছে তারা।

SHARE