ব্যারিস্টার মইনুলের ফোনালাপ ফাঁস

169

অনলাইন ডেস্ক : ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের একটি ফোনালাপ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। সোমবার রাতে গ্রেফতার হওয়ার আগে থেকেই অনলাইনে এ ফোনালাপ পাওয়া যায়।

সেখানে মজুমদার নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে মইনুলকে বলতে শোনা যায়। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক এ উপদেষ্টার পুরো ফোনালাপটি  এখানে তুলে ধরা হল-

মইনুল: কী খবর মজুমদার সাহেব?

মজুমদার: জি, স্লামেকুম স্যার। কেমন আছেন স্যার আপনি?

মইনুল: আছি, জেলের ভাত কয়েক দিন খেতে হবে আমাকে। সে জন্য রেডি হইতেছি।

মজুমদার: আচ্ছা আচ্ছা…

মইনুল: আজকে তো বেইল (জামিন) নিয়া আসলাম। কেস করছে দুটা। আরও একটা নাকি করছে। মামলা-কামলা দিয়ে এরা… মামলা-কামলার নামে হইলো রাজনীতি।

মজুমদার: (হাসি)

মইনুল: ঠিক আছে করুক। সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে- এই মেয়েটার পক্ষে ফাইভপারসেন্ট লোক, ৯৫ পারসেন্ট আমার লোক আমার পক্ষে। প্রথম আলো একটা সার্ভে উঠাইছে, যেখানে ৯৫ পারসেন্ট আমাকে ভোট দিয়েছে, আর পাঁচ পারসেন্ট তার পক্ষে। একটা মেয়ে লোক যে এত বাজে হইতে পারে আমি তো জানতাম না।

মজুমদার: (হাসতে হাসতে)… লন্ডন থাকত বলে।

মইনুল: কোথায় থাকত আমি জানতাম না, এখন শুনতেছি। কথাটা আমি বলেছি, খারাপ বলেছি, রাগ হয়েই বলেছি যদিও। একটা মেয়েকে এভাবে বলা ঠিক না। সে জন্য আমি তাকে ফোন করে বলেছি, দুঃখ প্রকাশ, এমনকি ক্ষমাও চাইছি। একটা মেয়েকে এভাবে বলা ঠিক না। আমি মাফ চাইছি। তার তো এই কাজ, এটা তো আমি জানতাম না।

একটা ভদ্র মহিলাকে বললাম যখন, দেখেন আপনি আমাকে প্রভোক করছেন, আমি তাতে রাগী হয়ে গেছি, খুব। একটা স্লিপ হয়ে গেছে আমার। একটা প্রেস রিলিজ দিয়েছি। তার পর দেখলাম ৯৫ পারসেন্ট লোকের কাছে সে বাজে বলে পরিচিত।

মজুমদার: স্যার, আরেকটা নিউজ স্যার। এটা একটা রিউমার উঠছে যে, আপনি আর ড. কামাল সাহেব মিলে নাকি লন্ডন যাচ্ছেন, তারেকের সঙ্গে মিটিং করার জন্য?

মইনুল: (অস্পষ্ট স্বরে) অ্যাঁ বাদ দেন…

মজুমদার: (হাসি) হ্যাঁ স্যার?

মইনুল: তারেকের সঙ্গে আমরা মিটিং করতে যাব! এটা কোথাকার ছাগল?… গোট না কাউ? ড. কামালসহ তারেকের কাছে যাব…! আমরা তারেকের নেতৃত্ব ধ্বংস করার জন্য ড. কামালকে আনছি।…আচ্ছা দোয়া কইরেন।

মজুমদার: (হাসতে হাসতে) জি স্লামুআলায়কুম স্যার। ভালো থাকবেন।

ঘটনাপ্রবাহ : মাসুদা ভাট্টি-মইনুল হোসেন বিতর্ক

SHARE