জোরদার হচ্ছে মমতার বাড়ির নিরাপত্তা, বসছে ওয়াচ টাওয়ার

191

অনলাইন ডেস্ক :নিরাপত্তা বাড়ছে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির দক্ষিণ কলকাতার কালীঘাটের বাড়ির। সার্বক্ষণিক নজর রাখতে বাসভবনের পাশেই বসছে দুইটি ওয়াচ টাওয়ার।

মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর থেকেই মমতার নিরাপত্তা নিয়ে যথেষ্ট উদ্বিগ্ন পুলিশ। জেড প্লাস নিরাপত্তা পাওয়া সত্বেও তিনি নিজে হঠাৎ করেই সাধারণের সাথে মিশে যান। পাশাপাশি সাম্প্রতিককালে কয়েকটি অনুষ্ঠানে নিরাপত্তার বলয় ভেঙে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে সাধারণ মানুষের পৌঁছে যাওয়ার ঘটনায় নিরাপত্তার ফাঁসফোঁকর সামনে চলে আসে।

তাছাড়া বাড়ির নিরাপত্তাও যথেষ্ট আঁটোশাটো নয়। দক্ষিণ কলকাতার হরিশ চ্যাটার্জি স্ট্রীটের মতো অত্যন্ত জনবহুল ও ঘিঞ্জি এলাকায় তাঁর বাড়ি। মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর তার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশ কর্মকর্তারা তাঁকে বাড়ি বদলের কথা বললেও তিনি যেতে নারাজ, বাড়িটি সংস্কারের প্রস্তাবও খারিজ করে দিয়েছেন তিনি। এদিকে তার বাড়ির সামনে দিয়ে ওই এলাকার অন্য বাসিন্দাদের যাতায়াতও বন্ধ করা সম্ভব নয়। আর এই সমস্ত দিক চিন্তাভাবনা করেই ওয়াচ টাওয়ারের কথা ভেবেছে নবান্ন।

প্রায় ৭৪ লাখ রুপি ব্যয়ে আপাতত দুইটি ওয়াচ টাওয়ার বসানোর কথা ভাবা হয়েছে। আগামী ৩ মাসের মধ্যে কাজ শেষ করা হবে। ইতিমধ্যেই দরপত্র চেয়েছে রাজ্যের পূর্ত মন্ত্রণালয়। নির্মাণের পর আগামী পাঁচ বছরের জন্য এই টাওয়ারগুলির রক্ষণাবেক্ষনের দায়িত্বও থাকবে ওই সংস্থার ওপর।

কালীঘাটের বাড়িতে মুখ্যমন্ত্রীর অফিস দুই বেলাই খোলা তাকে। যে কোন বিষয়ে তার সাথে দেখা করতে বা তাকে চিঠি দিতে প্রতিদিনই তার বাড়িতে অসংখ্য মানুষের আনাগোনা থাকে। যদিও বর্তমানে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে প্রবেশ করতে হলে বাড়ির দরজায় বসানো মেটাল ডিটেক্টর ও মোবাইল ফোন জমা রাখতে হয়। কিন্তু এটা যথেষ্ট নয় বলেই মনে করছেন নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশ কর্মকর্তারা। আর সেখান থেকেই তার বাড়ির ওপর আরও নজরদারি বাড়াতেই দুই ওয়াচ টাওয়ার বসানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এছাড়া মুখ্যমন্ত্রীর আভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বলয় অর্থাৎ ডি-জোনে নারী নিরাপত্তারক্ষীর সংখ্যাও আরও বাড়ানো হবে বলে জানা গেছে।

SHARE